বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ভুয়ো পুলিশ অফিসারের পরিচয়ে লক্ষাধিক টাকা প্রতারণা ব্যারাকপুরে, অধরা অভিযুক্ত
ভুয়ো পুলিশ অফিসারের পরিচয়ে লক্ষাধিক টাকা প্রতারণা ব্যারাকপুরে
ভুয়ো পুলিশ অফিসারের পরিচয়ে লক্ষাধিক টাকা প্রতারণা ব্যারাকপুরে

ভুয়ো পুলিশ অফিসারের পরিচয়ে লক্ষাধিক টাকা প্রতারণা ব্যারাকপুরে, অধরা অভিযুক্ত

ভুয়ো পুলিশ আধিকারিক পরিচয়ে লক্ষাধিক টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এমনকী, সরকারি ঠিকা পাইয়ে দেওয়ার নামে, লক্ষাধিক টাকা আত্মসাতের অভিযোগ তুলেছেন প্রতারিত।

দেবাঞ্জন দেব কাণ্ডের রেশ এখনও কাটেনি। তার আগেই এবার জেলা থেকেও সরকারি আধিকারিকের ভুয়ো পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগ উঠল। উত্তর ২৪ পরগনায় এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভুয়ো পুলিশ আধিকারিক পরিচয়ে সরকারি ঠিকা পাইয়ে দেওয়ার নামে লক্ষাধিক টাকা প্রতারণার অভিযোগ তুলেছেন এক ব্যক্তি।

শুধু তাই নয়, ওই প্রতারিতের অভিযোগ, ব্যারাকপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করতে গেলে, অভিযোগ না নিয়েই তাঁকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। অবশেষে মঙ্গলবার পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে ব্যারাকপুর আদালতের দ্বারস্থ হন ওই প্রতারিত। তাঁর আইনজীবীরা জানিয়েছেন, অভিযুক্ত পুলিশ আধিকারিক নয়। কিন্তু নিজেকে প্রভাবশালী দাবি করে তাঁদের মক্কেলের কাছ থেকে আর্থিক প্রতারণা করেছে।

নিউ ব্যারাকপুরের বাসিন্দা প্রতারিত ওই ব্যক্তি অর্কপ্রভ মজুমদারের অভিযোগ, রিচার্ড গ্যাসপার নামের অভিযুক্ত প্রথমে নিজেকে ভুয়ো পুলিশ অফিসার পরিচয়ে দিয়ে পথ বাতি-‌সহ বিভিন্ন সরকারি বরাত পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। তারপর অভিযোগকারীর ১৪ লক্ষ টাকা আত্মসাত করে সে। আরও অভিযোগ, রিচার্ড তাঁকে জানিয়েছিল, যেহেতু সে পুলিশ অফিসার, সেজন্য বিভিন্ন সরকারি মহলে তাঁর যোগাযোগ রয়েছে। সেই সুবাদে সরকারি ঠিকা পাইয়ে দিতে সাহায্য করবে তাঁকে। 

অর্কপ্রভের অভিযোগ, তাঁর কাছ থেকে ১৪ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে রিচার্ড। পরে কাজের কোনও বরাত না পেয়ে সন্দেহ হয় প্রতারিত ওই যুবকের। এরপর রিচার্ডের খোঁজ নিতে গিয়ে তিনি জানতে পারেন, আদতে ওই ব্যক্তি কোনও পুলিশ অফিসারই নয়। এখানেই শেষ নয়, প্রতারিতের আরও অভিযোগ, তাঁর টাকা পেতে রিচার্ডকে তাগাদা দিতেই কয়েকজন দুষ্কৃতী পাঠিয়ে জোর করে কিছু কাগজে সই করাতে বাধ্য করায় অভিযুক্ত। এরপরই আদালতের দ্বারস্থ হন অর্কপ্রভ।

বন্ধ করুন