বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে আধমরা যুবক, উদ্ধার করতে গেলে হামলা হল পুলিশের উপরেও
ধৃত যুবককে মারধর করছেন স্থানীয়রা।

চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে আধমরা যুবক, উদ্ধার করতে গেলে হামলা হল পুলিশের উপরেও

  • বলরাম চক্রবর্তী নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা জানিয়েছেন, বেশ কয়েকদিন ধরেই সুভাষগঞ্জ এলাকায় চুরির ঘটনা ঘটে চলেছে। গতকালও একটি বাড়িতে চুরি হয়।

চোর সন্দেহে এক যুবককে ধরে ফেলে ব্যাপক গণপিটুনি। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জের সুভাষগঞ্জ এলাকায়। ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ঘটনাস্থলে ছুটে আসে রায়গঞ্জ থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। উত্তেজিত জনতার হাত থেকে গুরুতর আহত যুবককে উদ্ধার করে রায়গঞ্জ গভর্নমেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সুভাষগঞ্জ এলাকায় বেশ কিছুদিন ধরেই চুরির ঘটনা ঘটছিল। গতকাল রাতেও মনোজ সাহার বাড়িতে চুরি করে দুষ্কৃতীরা। আজ সকালে সেই চুরির মাল নিতে আসলে হাতে নাতে এক দুস্কৃতীকে ধরে ফেলে এলাকার লোকজন। এর পর উত্তেজিত বাসিন্দারা শুরু করে গণপিটুনি। ব্যাপক গণপিটুনিতে গুরুতর আহত হয় ধৃত ওই যুবক। ঘটনাস্থলে ছুটে আসে রায়গঞ্জ থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। আহত যুবককে উদ্ধার করা নিয়ে পুলিশের সাথে ব্যাপক ধস্তাধস্তি শুরু হয় স্থানীয় উত্তেজিত বাসিন্দাদের।

বলরাম চক্রবর্তী নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা জানিয়েছেন, বেশ কয়েকদিন ধরেই সুভাষগঞ্জ এলাকায় চুরির ঘটনা ঘটে চলেছে। গতকালও একটি বাড়িতে চুরি হয়। দুষ্কৃতীরা চুরির মালপত্র আজ সকালে নিতে এলে একজন ধরা পরে যায়। তাকে আমরা আটকে রাখি। কিন্তু কিছু উত্তেজিত মানুষ ওই দুস্কৃতীকে ধরে মারধর শুরু করে। পুলিশ উদ্ধার করতে এলে পুলিশের সাথে ব্যাপক ধস্তাধস্তি এবং বচসা হয়। পরে পুলিশ কোনওমতে উদ্ধার করে নিয়ে যায় ওই দুষ্কৃতীকে। তাকে চিকিৎসার জন্য রায়গঞ্জ গভর্মেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘটনাকে ঘিরে ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দিয়েছে সুভাষগঞ্জ এলাকায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।

 

বন্ধ করুন