বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে গেল ৬ কারখানা, দীপাবলির আগে ক্ষতির মুখে ব্যবসায়ীরা
বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে গেল ৬টি কারখানা, দীপাবলির আগে ক্ষতির মুখে ব্যবসায়ীরা (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে গেল ৬টি কারখানা, দীপাবলির আগে ক্ষতির মুখে ব্যবসায়ীরা (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে গেল ৬ কারখানা, দীপাবলির আগে ক্ষতির মুখে ব্যবসায়ীরা

  • আগুনে লেগে ভস্মীভূত ছ'টি কারখানা।

বড়সড় অগ্নিকাণ্ডে কার্যত জতুগৃহের রূপ নিল হাওড়ার ডোমজুড়ের ভাসকুর বেলতলা এলাকা। আগুন লেগে ভস্মীভূত হয়ে যায় ছ'টি কারখানা। সোমবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে ডোমজুড়ের ভাসকুর বেলতলা এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে খবর, ডোমজুড়ের ওই কারখানাগুলিতে ভোর সাড়ে চারটে নাগাদ আগুন লাগে। ভস্মীভূত হয়ে যায় প্লাস্টিক, জামাকাপড়, চানাচুর এবং পাইপ তৈরির কারখানা। অগ্নিকাণ্ডে কয়েক লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলেই অনুমান। এই ঘটনায় দীপাবলির মুখে বড় ক্ষতির মুখে ব্যবসায়ীরা।

প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে দাহ্য পদার্থ থাকায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে পাশের কারখানাগুলিতে। দাউ দাউ করে জ্বলতে থাকে ছ'টি কারখানা। ভাসকুর বেলতলা এলাকায় প্রথমে পাইপ তৈরির কারখানায় আগুন লেগে যায়। সেখানে রাতেও কাজ হচ্ছিল। তারইমধ্যে অগ্নিকাণ্ডে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন কর্মীরা। মুহূর্তের মধ্যেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয় বাসিন্দারা জল ঢেলে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। তবে আগুন আয়ত্তে আসেনি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকলের ছ'টি ইঞ্জিন।

প্রায় ঘণ্টাখানেকের চেষ্টায় আগুন আয়ত্তে আসে। ওই ছ'টি কারখানার মধ্যে রয়েছে প্লাস্টিক, জামাকাপড়, চানাচুর এবং পাইপ তৈরির কারখানা। দমকল কর্মীদের প্রাথমিক অনুমান, শর্ট সার্কিটের ফলে এই অগ্নিকাণ্ড। দাহ্য পদার্থ মজুত থাকায় আগুন পাশের কারখানাগুলিতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। তবে ওই কারখানাগুলিতে অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা কতটা ছিল, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ছ'টি কারখানা ভস্মীভূত হয়ে যাওয়ায় কয়েক লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন