বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > জেলাস্তরে রদবদল করতে শুরু করল তৃণমূল, সুযোগ দেওয়া হচ্ছে নতুন মুখদের
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

জেলাস্তরে রদবদল করতে শুরু করল তৃণমূল, সুযোগ দেওয়া হচ্ছে নতুন মুখদের

  • পুরুলিয়ার ২২ জন ব্লক সভাপতির মধ্যে ১৪ জনই নতুন মুখ। এদিকে, ২০টি ব্লকের মধ্যে ১৫টিতেই নতুন মুখ আনা হয়েছে বাঁকুড়া জেলায়।

এবার পশ্চিম বর্ধমান, বাঁকুড়া এবং পুরুলিয়ায় জেলাস্তরের নেতাকর্মীদের মধ্যে রদবদল শুরু করল তৃণমূল। সংগঠন আরও শক্তিশালী করতে একাধিক জেলা সভাপতি বদলের পর কিছুদিন আগেই ব্লক সভাপতি পরিবর্তনের কাজ শুরু করেছে তৃণমূল। মূলত তাঁদেরই সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে যাঁদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ এনেছে সাধারণ মানুষ। সুযোগ দেওয়া হচ্ছে নতুন মুখদের যাঁরা মানুষের জন্য কাজ করতে আগ্রহী।

কয়েকদিন আগেই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন বিধায়ক তুষারকান্তি ভট্টাচার্য। তাঁকে বাঁকুড়া জেলা কমিটির সহ সভাপতি করা হয়েছে। এদিকে, কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া চঞ্চল মৈত্রকে পুরুলিয়া জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে। পুরুলিয়া জেলার জয়পুর ব্লকের সভাপতি হয়েছেন শঙ্কর নারায়ণ সিং দেও। তিনিও বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। ওই জেলারই রঘুনাথপুর শহরের টাউন সভাপতি করা হয়েছে গেরুয়া শিবিরের আর এক প্রাক্তনী বিষ্ণুচরণ মাহাতোকে।

নতুন করে গঠিত পুরুলিয়া জেলা কমিটিতে রয়েছেন ১৮৬ জন সদস্য। রয়েছেন ১৮ জন জেলা সহ সভাপতি, ৩৩ জন সাধারণ সম্পাদক, ৪৯ জন সম্পাদক ও ৮০ জন সাধারণ সদস্য। পুরুলিয়ার ২২ জন ব্লক সভাপতির মধ্যে ১৪ জনই নতুন মুখ। এদিকে, ২০টি ব্লকের মধ্যে ১৫টিতেই নতুন মুখ আনা হয়েছে বাঁকুড়া জেলায়। দু্র্গাপুরের ৪টি ব্লকে নতুন সভাপতি নির্বাচিত করা হয়েছে।

২০২১–এর বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করেই এ সব সাংগঠনিক রদবদল করা হচ্ছে তৃণমূলের অন্দরে। এর পর যুব তৃণমূলেও কিছু পরিবর্তন আনা হবে বলে জানা গিয়েছে।

বন্ধ করুন