বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌মতুয়ারা বুঝে নেবে’‌, শান্তনুর হুঁশিয়ারির পরই হাবড়ায় রেল অবরোধ, প্রতিবাদ
হাবড়া স্টেশনে অবরোধ করল মতুয়ারা।

‘‌মতুয়ারা বুঝে নেবে’‌, শান্তনুর হুঁশিয়ারির পরই হাবড়ায় রেল অবরোধ, প্রতিবাদ

  • এই ঘটনার জেরে শুক্রবার সকালে হাবড়া স্টেশনে অবরোধ করল মতুয়ারা।

আজ, শুক্রবার হাবড়া স্টেশনে রেল অবরোধ করল মতুয়ারা। ঠাকুরনগরে আসার পথে হামলার শিকার হয়েছেন তাঁরা বলে অভিযোগ। বাস থামিয়ে তীর্থযাত্রীদের উপর হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ। এমনকী এই ঘটনায় দু’‌জন গুরুতর জখম হয়েছেন বলে খবর। এই ঘটনায় চরম ক্ষোভপ্রকাশ করে সমগ্র মতুয়া সমাজ। অভিযোগ, বারাসত–যশোর রোডে কয়েকজন দুষ্কৃতী বাস আটকে হামলা চালায়। পুণ্যার্থীদের মারধর করে এবং বাসে ভাঙচুর চালায়।

এই ঘটনার পর বিজেপি সাংসদ তথা প্রতিমন্ত্রী শান্তনু ঠাকুর হুঁশিয়ারি দেন, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রশাসন ব্যবস্থা না নিলে মতুয়ারা বুঝে নেবে। তারপরই এই ঘটনার জেরে শুক্রবার সকালে হাবড়া স্টেশনে অবরোধ করল মতুয়ারা। তার জেরে শিয়ালদা–বনগাঁ শাখার যান চলাচল ব্যাহত হয়েছে। এদিন আপ লাইনে একটি ট্রেন আটকে দেয় বিক্ষোভকারীরা। তবে পুলিশের তৎপরতায় পরে অবরোধ তুলেও নেন তাঁরা।

কী কারণে এই হামলা? স্থানীয় সূত্রে খবর, পুণ্যার্থীদের বাসের সঙ্গে একটি গাড়ির ধাক্কা লাগে। এখান থেকেই ঝামেলার সূত্রপাত। এই ঘটনা থেকে দু’পক্ষের মধ্যে বচসা শুরু হয়। তখন গাড়িতে থাকা বেশ কয়েকজন ওই বাসে উঠে যায় এবং হামলা চালায়। আজ, শুক্রবার মতুয়া মেলায় যাচ্ছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। তার আগে এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

পুলিশ কী পদক্ষেপ করেছে?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। এখনও পর্যন্ত চার জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখানের সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করা হচ্ছে। আক্রান্তদের সঙ্গে কথা বলে অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে বারাসাত থানার পুলিশ। এই হামলায় জখম হন ওই বাসের যাত্রী সুমন হালদার ও দলপতি বিধান হালদার।

ঠিক কী বলেছেন শান্তনু ঠাকুর?‌ এদিন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘‌যে এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে, সেটা অত্যন্ত অসুরক্ষিত এলাকা। বারবার ওই ধরনের ঘটনা ঘটেছে এলাকায়। প্রশাসনকেও জানানো হয়েছে। প্রশাসনকে বলব, সব অভিযুক্তকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার করতে। তা না হলে আমরা সংগঠন থেকে ব্যবস্থা নেব। মতুয়ারা বুঝে নেবে। তখন সম্পূর্ণভাবে দায়ী থাকবেন আপনারা। সরকারের আমলে আইনশৃঙ্খলার চরম অবনতি হয়েছে।’‌

বন্ধ করুন