বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দু'দিনে পারদ নামল প্রায় ৪ ডিগ্রি, শীতের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে কাঁপছে বাংলা
দু'দিনে পারদ নামল প্রায় ৪ ডিগ্রি, শীতের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে কাঁপছে বাংলা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই) 
দু'দিনে পারদ নামল প্রায় ৪ ডিগ্রি, শীতের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে কাঁপছে বাংলা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই) 

দু'দিনে পারদ নামল প্রায় ৪ ডিগ্রি, শীতের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে কাঁপছে বাংলা

  • এখনও পর্যন্ত আজ চলতি মরশুমের শীতলতম দিন।

ডিসেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে কনকনে ঠান্ডায় কাঁপতে শুরু করল রাজ্য। দু'দিনে (শনিবার এবং রবিবার) একধাক্কায় কলকাতার পারদ প্রায় চার ডিগ্রি নেমে গিয়েছে। জেলার কোনও কোনও প্রান্তে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নীচে থাকবে। উত্তরবঙ্গ এবং পশ্চিম জেলাগুলিতেও হাড় কাঁপানো শীত মালুম হবে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দমদমে শনিবারই তাপমাত্রা দাঁড়িয়েছিল ১২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ব্যারাকপুরে ন'ডিগ্রি সেলসিয়াসে পারদ নেমে গিয়েছিল। সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বইছিল উত্তুরে হাওয়া। তারই রেশ ধরে রবিবার কলকাতার তাপমাত্রা আরও কমে ১২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস দাঁড়িয়েছে। যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। একইসঙ্গে এখনও পর্যন্ত আজ (রবিবার) চলতি মরশুমের শীতলতম দিন। 

রীতিমতো হাড় কাঁপিয়ে ঠান্ডা পড়েছে রাজ্যের পশ্চিমের জেলাগুলিতেও। শনিবারই পানাগড়ে তাপমাত্রা সাত ডিগ্রিতে নেমে গিয়েছিল। শ্রীনিকেতন, আসানসোলের তাপমাত্রা আট ডিগ্রির ঘরে ঘোরাফেরা করেছে। পুরুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ন'ডিগ্রি সেলসিয়াস। রবিবার বীরভূম, পুরুলিয়া এবং দুই বর্ধমানে শৈত্যপ্রবাহ চলতে পারে জানানো হয়েছে। উত্তরবঙ্গেও কনকনে শীত অনুভূত হবে। শনিবার দার্জিলিঙের তাপমাত্রা তিন ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে গিয়েছিল। জলপাইগুড়ির পারদ ন'ডিগ্রির কাছে ছিল। রবিবারও সেই ধারা বজায় আছে। 

হাওয়া অফিস জানিয়েছে, উত্তর ভারতের একাংশের শৈত্যপ্রবাহ চলছে। রীতিমতো কাঁপছে দিল্লি, হরিয়ানার একাংশ। ঠান্ডায় জুবুথুবু কাশ্মীরও। সঙ্গে আগামী কয়েকদিন বঙ্গের আকাশ পরিষ্কার থাকবে। বাধাহীনভাবে রাজ্যে প্রবেশ করবে কনকনে শীতল হাওয়া। তার ফলে কমপক্ষে দিনচারেক শীতের এরকম দাপুটে ইনিংস থিতু হবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

বন্ধ করুন