বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দমদমের হোমে নাবালিকার যৌনাঙ্গে লঙ্কার গুঁড়ো ছিটিয়ে নির্মম অত্যাচার
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

দমদমের হোমে নাবালিকার যৌনাঙ্গে লঙ্কার গুঁড়ো ছিটিয়ে নির্মম অত্যাচার

  • নাবালিকাকে নিয়ে ক্যানিংয়ের তালদিতে বাড়ি নিয়ে আসেন তিনি। এর পর জানা যায় নৃশংসতার গোটা ছবি। পরিজনদের মেয়েটি জানিয়েছে, তাঁকে যৌনাঙ্গে লঙ্কার গুঁড়ো মাখিয়ে অত্যাচার করা হয়েছে।

ফের রাজ্যের হোমে নৃশংস নির্যাতনের শিকার হল এক নাবালিকা। দমদমের একটি হোমের এই ঘটনা শনিবার প্রকাশ্যে আসতে শোরগোল পড়েছে। নির্যাতিতার বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ে। তাঁর পরিবারের দাবি, নাবালিকার যৌনাঙ্গে লঙ্কার গুঁড়ে দিয়ে নির্যাতন চালানো হয়েছে। 

নাবালিকার মা ও বাবা দুজনেই মারা গিয়েছেন। তাঁর একটি বোনও রয়েছে। মাসির কাছে থাকত ২ বোন। কয়েক মাস আগে কাউকে কিছু না জানিয়ে ২ বোনকে দমদমের একটি হোমে রেখে আসেন তাঁর স্বামী। শুক্রবার সেখানে তাদের দেখতে যান মাসি। গিয়ে দেখেন বারান্দার এক কোণায় পড়ে ছটফট করছে ৯ বছরের মেয়েটি। 

নাবালিকাকে নিয়ে ক্যানিংয়ের তালদিতে বাড়ি নিয়ে আসেন তিনি। এর পর জানা যায় নৃশংসতার গোটা ছবি। পরিজনদের মেয়েটি জানিয়েছে, তাঁকে যৌনাঙ্গে লঙ্কার গুঁড়ো মাখিয়ে অত্যাচার করা হয়েছে। তার পর সেখানে মারা হয়েছে খুন্তির বাড়ি। এছাড়া তাঁর সারা শরীরে আঘাত করা হয়েছে। যার জেরে শরীর জুড়ে তৈরি হয়েছে ক্ষত। 

ঘটনার কথা জানতে পেরে চাইল্ড লাইনে খবর দেন স্থানীয়রা। আসে ক্যানিং থানার পুলিশ। তারা জানায়, অপরাধ দমদমে হওয়ায় অভিযোগ করতে হবে সেখানেই।

 

বন্ধ করুন