বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌নুসরত জাহান নিখোঁজ, সন্ধান চাই’‌, বসিরহাট জুড়ে পোস্টার ফেলল তৃণমূলই!
নিখোঁজ পোস্টার

‘‌নুসরত জাহান নিখোঁজ, সন্ধান চাই’‌, বসিরহাট জুড়ে পোস্টার ফেলল তৃণমূলই!

  • রাতের অন্ধকারে এই পোস্টার দেওয়ালে সাঁটিয়ে দিয়েছে কেউ। সাংসদের এলাকায় না আসা নিয়ে দলের কর্মী–সমর্থকদের মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে। তা থেকেই এই পোস্টার কাণ্ড ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে। আবার এটা বিরোধীদের কাজ বলেও অনেকে মনে করছেন। কোনও ইস্যু না থাকায় বিরোধীরা এই ধরনের কুৎসা রটাচ্ছে।

মা হওয়ার পর তিনি যেভাবে বসিরহাটে ছুটে গিয়েছিলেন তাতে সবাই বুঝেছিল সাংসদ তাঁদের পাশেই আছেন। সেখানে কয়েক মাসের মধ্যে নিখোঁজ সাংসদের খোঁজ চাই বলে পোস্টার পড়ায় জোর আলোড়ন দেখা দিয়েছে। হ্যাঁ, তিনি তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ নুসরত জাহান। এখন এমন পোস্টারেই ছয়লাপ হাড়োয়া বিধানসভার চাঁপাতলা পঞ্চায়েত এলাকা।

ঠিক কী লেখা আছে পোস্টারে?‌ যে পোস্টার দেখা গিয়েছে তাতে লেখা রয়েছে, ‘‌বসিরহাটের এমপি নুসরত জাহান নিখোঁজ, সন্ধান চাই। প্রতারিত জনগণ। প্রচারে তৃণমূল কর্মীবৃন্দ।’‌ তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদের নামে এমন পোস্টার দেখে তৃণমূল কংগ্রেসের অন্য অংশ তা রাতারাতি সরিয়ে ফেলে। কিন্তু দলের সাংসদের বিরুদ্ধে দলের একটা অংশের কর্মীদের এই পোস্টার ফেলায় জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

কেন এমন পোস্টার পড়ল?‌ এই বিষয়ে দেগঙ্গার চাঁপাতলা পঞ্চায়েতের প্রধান হুমায়ুন রেজা চৌধুরী বলেন, ‘‌গত ২০০৯ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত বসিরহাটের সাংসদ ছিলেন হাজি নুরুল ইসলাম। এলাকার উন্নয়ন–সহ সব কাজে সাধারণ মানুষ থেকে তৃণমূল কর্মীরা তাঁকে পেয়েছেন। কিন্তু এখন তৃণমূল সাংসদকে পাওয়াই যায় না। তাই এলাকার মানুষ এই ধরনের পোস্টার দিয়েছে।’‌

কারা ফেলেছে এই পোস্টার?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, রাতের অন্ধকারে এই পোস্টার দেওয়ালে সাঁটিয়ে দিয়েছে কেউ। সাংসদের এলাকায় না আসা নিয়ে দলের কর্মী–সমর্থকদের মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে। তা থেকেই এই পোস্টার কাণ্ড ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে। আবার এটা বিরোধীদের কাজ বলেও অনেকে মনে করছেন। কোনও ইস্যু না থাকায় বিরোধীরা এই ধরনের কুৎসা রটাচ্ছে। এলাকার উন্নয়নে সাংসদের ভূমিকা রয়েছে। সাংসদ নিয়মিত যোগাযোগ রাখেন বলে তৃণমূলের দাবি।

বন্ধ করুন