বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কমিটিতে ঠাঁই নেই পুরনো কর্মীদের, ময়নাগুড়ি বিজেপিতে গণইস্তফায় আলোড়ন
বিজেপির ময়নাগুড়ি দক্ষিণ মণ্ডল কমিটি

কমিটিতে ঠাঁই নেই পুরনো কর্মীদের, ময়নাগুড়ি বিজেপিতে গণইস্তফায় আলোড়ন

  • নতুন এই কমিটি অর্থের বিনিময়ে পদ দিয়ে তৈরি হয়েছে। যাঁরা প্রতিকূল পরিস্থিতিতে লড়াই করেছেন তাঁরা জায়গা পাননি। উলটে কিছু না জানিয়েই নতুন কমিটি তৈরি হয়েছে। তাই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, কোনও পদে থাকবেন না তাঁরা। সুতরাং এই গণইস্তফা দেওয়া হয়েছে।

সদ্য বিজেপি সংস্রব ত্যাগ করেছেন অর্জুন সিং। সে ক্ষতে এখনও প্রলেপ দেওয়া যায়নি। তার মধ্যেই অর্থের বিনিময়ে দলীয় পদ দেওয়ার অভিযোগ তুলে জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়িতে ২০ জন বিজেপি নেতা পদত্যাগ করলেন। এখানে কমিটি ঘোষণা হতেই গোষ্ঠীকোন্দল প্রকাশ্যে চলে এল। অর্থের বিনিময়ে দলীয় পদ দেওয়ার প্রতিবাদে গণ পদত্যাগ করলেন বিজেপি কর্মীরা। বিজেপির ময়নাগুড়ি দক্ষিণ মণ্ডল কমিটিতে এই ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

ঠিক কী ঘটেছে বিষয়টি?‌ বিক্ষুব্ধ নেতাদের অভিযোগ, নতুন এই কমিটি অর্থের বিনিময়ে পদ দিয়ে তৈরি হয়েছে। যাঁরা প্রতিকূল পরিস্থিতিতে লড়াই করেছেন তাঁরা জায়গা পাননি। উলটে কিছু না জানিয়েই নতুন কমিটি তৈরি হয়েছে। তাই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, কোনও পদে থাকবেন না তাঁরা। সুতরাং এই গণইস্তফা দেওয়া হয়েছে।

কেন এমন অভিযোগ উঠছে?‌ জানা গিয়েছে, ময়নাগুড়িতে জেল খাটা এবং ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীরা ঠাঁই পেলেন না কমিটিতে। এঁরাই পার্টির জন্য জেল খেটেছিলেন। ঘরছাড়া পর্যন্ত হতে হয়েছিল। তাঁরাই ঠাঁই পেলেন না কমিটিতে। এই ঘটনাতেই ময়নাগুড়িতে ফের প্রকাশ্যে এল বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দল। আগামীদিনে বিজেপি বলেই কিছু থাকবে না বলে কটাক্ষ তৃণমূল কংগ্রেসের।

কারা বিজেপি থেকে পদত্যাগ করলেন?‌ ময়নাগুড়ি বিধানসভার দক্ষিণ মণ্ডলের জেলা সম্পাদক, মণ্ডল সম্পাদক, জেলা যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক, মণ্ডল যুব সভাপতি, মণ্ডল যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক–সহ মোট ২০ জন গণইস্তফা দিয়েছেন। পুরনো কর্মীরা বাদ পড়া নিয়েই এই ক্ষোভ এবং তার জেরে গণইস্তফা বলে জানা গিয়েছে।

বন্ধ করুন