বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শ্যামাপ্রসাদের আমলে নেওয়া রাজপরিবারের জমি ফিরিয়ে দিচ্ছে পুরসভা
শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়
শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়

শ্যামাপ্রসাদের আমলে নেওয়া রাজপরিবারের জমি ফিরিয়ে দিচ্ছে পুরসভা

  • পুরসভা সূত্রে খবর, ২০১৭ সালে মল্ল রাজ দরবারে একটি পার্ক তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হয়। শ্যামাপ্রসাদের নির্দেশে ওই পার্ক তৈরি করতে দেড় কোটি টাকা মঞ্জুর করা হয়।

আদালতের নির্দেশে ‌বিষ্ণুপুরের প্রাক্তন চেয়ারম্যান শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের আমলে নেওয়া সাড়ে ৪ একর জমি মল্ল রাজাদের ফিরিয়ে দিতে বাধ্য হচ্ছে পুরসভা। ওই জমিতে পার্ক তৈরি করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু মল্ল রাজারা পার্ক তৈরি করতে দিতে চাইতেন না। শেষ পর্যন্ত নিজেদের জমি ফিরে পেল রাজ পরিবার।

পুরসভা সূত্রে খবর, ২০১৭ সালে মল্ল রাজ দরবারে একটি পার্ক তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হয়। শ্যামাপ্রসাদের নির্দেশে ওই পার্ক তৈরি করতে দেড় কোটি টাকা মঞ্জুর করা হয়। লালজিউ মন্দির সংলগ্ন এলাকায় ধীরে ধীরে সাড়ে ৪ একর জমির ওপর গড়ে ওঠে পার্ক। কিন্তু রাজ পরিবারের সদস্যরা চাইতেন না, সেখানে পার্ক তৈরি হোক। পুরসভার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে বিষ্ণুপুর থানায় অভিযোগ জানাতে যায় রাজ পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু প্রাক্তন চেয়ারম্যান নিজের প্রভাব খাটিয়ে থানায় অভিযোগ নিতে দেননি। এরপরই আদালতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় রাজ পরিবারের সদস্যরা। সম্প্রতি কলকাতা হাই কোর্ট ফের পার্কটিকে রাজ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

এই প্রসঙ্গে বিষ্ণুপুর পুরসভার পুরপ্রশাসক অর্চিতা বিদ জানান, ‘‌পার্কটি নির্মাণের সময়ে যাদের অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন ছিল, তাঁদের অনুমতি নেওয়া হয়নি। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, পার্কটি যে অবস্থায় রয়েছে, সেই অবস্থাতেই রাজপরিবারকে ফিরিয়ে দেব। এরফলে বিপুল অঙ্কের সরকারি অর্থের অপব্যয় হল।’‌ রাজ পরিবারের সদস্য অমিতাভ সিংহ দেব জানান, ‘‌রাজ পরিবারের জমি আমাদের মালিকানাধীন। কিন্তু তখনকার চেয়ারম্যান নিজের প্রভাব খাটিয়ে এই পার্ক বানিয়েছিলেন। আমরা আপত্তি তুলেছিলাম। থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। শেষ পর্যন্ত হাই কোর্টে গিয়ে সুবিচার পাওয়া গেল।’‌ উল্লেখ্য, সম্প্রতি বিষ্ণুপুরে টেন্ডার দুর্নীতি মামলায় তদন্ত শুরু হতেই প্রাক্তন চেয়ারম্যান বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ সামনে আসে। নামে, বেনামে শ্যামাপ্রসাদের নামে একাধিক জমির হদিশ পাওয়া যায়। গ্রেফতার করা হয় প্রাক্তন চেয়ারম্যানকে।

বন্ধ করুন