বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রাতে বিধি উপেক্ষা করে হই-হুল্লোড়,দোকান খোলা-করোনা রুখতে সব জেলায় চিঠি নবান্নের
রাতে বিধি উপেক্ষা করে হইহুল্লোড়, দোকান খোলা-করোনা রুখতে সব জেলায় চিঠি নবান্নের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য টুইটার)
রাতে বিধি উপেক্ষা করে হইহুল্লোড়, দোকান খোলা-করোনা রুখতে সব জেলায় চিঠি নবান্নের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য টুইটার)

রাতে বিধি উপেক্ষা করে হই-হুল্লোড়,দোকান খোলা-করোনা রুখতে সব জেলায় চিঠি নবান্নের

করোনা মোকাবিলায় এখনও রাত ৯টা থেকে ভোর ৫ টা পর্যন্ত বাইরে বেরোনোর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

‌রাজ্যে করোনা বিধি যাতে ঠিকভাবে মানা হয়, সে বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে জেলা প্রশাসনকে এবার কড়া চিঠি ধরালেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ ত্রিবেদী। মুখ্য সচিবের তরফে চিঠিতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, জেলায় রাতের দিকে অনেকক্ষেত্রেই নিয়ম মানা হচ্ছে না। হোটেল, রেস্তোরাঁ থেকে শুরু করে দোকানপাট কেউ নিয়ম মানছে না। করোনা বিধি কড়াভাবে মানতে হবে।

রাজ্যে বিধিনিষেধের ক্ষেত্রে বেশ কিছুটা শিথিলতা দেওয়া হলেও এখনও পর্যন্ত পুরোপুরি বিধিনিষেধ উঠে যায়নি। করোনা মোকাবিলায় এখনও রাত ৯টা থেকে ভোর ৫ টা পর্যন্ত বাইরে বেরোনোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তবে এই নিষেধাজ্ঞাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে পার্ক স্ট্রিটের এক হোটেলে রাতে নাচ, গান, হইহুল্লোড়ও হয়েছে। এছাড়াও শহরতলির বিভিন্ন এলাকায় বিধি নিষেধ ঠিকভাবে না মানারও অভিযোগ সামনে আসছে। তাই এবার প্রতিটি জেলাকেই সতর্ক করে দিল নবান্ন। রাজ্যের মুখ্যসচিব প্রতিটি জেলার জেলাশাসককে চিঠি লিখে জানিয়ে দিয়েছেন, শুধু নাকা চেকিংই নয়, সীমান্ত এলাকাতেও নজরদারি বাড়াতে হবে। এখনই ব্যবস্থা না নিলে পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যাবে। শুধু জেলাশাসকদেরই নয়, পুলিশ সুপারদেরও এই চিঠি দেওয়া হয়েছে। জেলার বিভিন্ন এলাকায় আরও বেশি করে নজরদারি বাড়ানোর কথা বলা হয়েছে।

ইতিমধ্যে শহর কলকাতায় রাতে পুলিশি নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। বিশেষ করে পার্ক স্টিটে হোটেলে রাতভর নাচ গান হুল্লোড়ের ঘটনা সামনে আসার পরে পুলিশি নজরদারি কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছে। কলকাতার বিভিন্ন পয়েন্টে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু শুধু কলকাতাতেই নজরদারি বাড়ালে চলবে না, জেলাগুলিতেও যাতে বিধি নিষেধ ঠিকভাবে পালন করা হয়, সে বিষয়ে এবার জেলা প্রশাসনকে সতর্ক করল রাজ্য।

বন্ধ করুন