বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Kurmi Community: রেল অবরোধের জট কাটাতে উদ্যোগী মুখ্যমন্ত্রী, কেন্দ্রকে চিঠি পাঠাল নবান্ন
কুড়মি সম্প্রদায়ের রেল অবরোধ

Kurmi Community: রেল অবরোধের জট কাটাতে উদ্যোগী মুখ্যমন্ত্রী, কেন্দ্রকে চিঠি পাঠাল নবান্ন

  • জানা গিয়েছে, কুড়মি সম্প্রদায়ের দাবি ছিল তাঁদের কুড়মালি ভাষাকে সংবিধানে স্বীকৃতি দিতে হবে। আর তাঁদেরকে তফশিলি উপজাতিভুক্ত করতে হবে। একইসঙ্গে তাঁদের সারনা ধর্মের কোড তৈরি করতে হবে। এই দাবিগুলিকে নিয়েই শুরু হয়েছিল কুড়মি সমাজের রেল অবরোধ। কিন্তু তাতে কর্ণপাত করছে না কেন্দ্রীয় সরকার এবং রেল মন্ত্রক।

দু’‌দিন ধরে কুড়মি সম্প্রদায়ের রেল এবং সড়কপথ অবরোধের জেরে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। পুরুলিয়া–আদ্রা ডিভিশনের কুস্তাউর স্টেশন–সহ খড়গপুর খেমাশুলি স্টেশনে তাঁদের এই বিক্ষোভ আন্দোলন চলছে। ৫০ ঘণ্টা পার হয়ে গেলেও চলছে আন্দোলন। এই আবহে দক্ষিণ–পূর্ব রেলের আরও অনেক ট্রেন বাতিল হল আজ। বহু ট্রেনকে অন্য পথে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে ৬ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করার ফলে গাড়ি–লরি পর্যন্ত আটকে রয়েছে বলে খবর। এবার কুড়মি সম্প্রদায়ের সমস্যার সমাধানে উদ্যোগী হলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে কেন্দ্রকে এই বিষয়ে চিঠি পাঠাল নবান্ন।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ জানা গিয়েছে, কুড়মি সম্প্রদায়ের দাবি ছিল তাঁদের কুড়মালি ভাষাকে সংবিধানে স্বীকৃতি দিতে হবে। আর তাঁদেরকে তফশিলি উপজাতিভুক্ত করতে হবে। একইসঙ্গে তাঁদের সারনা ধর্মের কোড তৈরি করতে হবে। এই দাবিগুলিকে নিয়েই শুরু হয়েছিল কুড়মি সমাজের রেল অবরোধ। কিন্তু তাতে কর্ণপাত করছে না কেন্দ্রীয় সরকার এবং রেল মন্ত্রক।

ঠিক কী করেছেন মুখ্যমন্ত্রী?‌ এই অবরোধের জেরে বাংলার মানুষ অসুবিধার সম্মুখীণ হচ্ছেন। সেটা জানতে পেরেই এবার উদ্যোগী হলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ অনুযায়ী, নবান্ন চিঠি পাঠালো কেন্দ্রের আদিবাসী মন্ত্রকে। কুড়মিদের এই দাবিকে যাতে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করা হয় সে কথাই ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে রাজ্যের পক্ষ থেকে।

কী জানাচ্ছেন রাজ্যের মন্ত্রী?‌ এই রেল অবরোধ নিয়ে মন্ত্রী মানসরঞ্জন ভূঁইয়া বলেন, ‘‌মুখ্যমন্ত্রী আমাকে দায়িত্ব দিয়েছেন কুড়মি সম্প্রদায়ের এই অবরোধ শান্তিপূর্ণভাবে তুলে নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা করতে। দুর্গাপুজোর মুখেই টানা দুদিন রেল পরিষেবা বিপর্যস্ত থাকায় ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন বহু মানুষ। নিত্যযাত্রী থেকে শুরু করে হকাররা পর্যন্ত এই অবরোধে ভুক্তভোগী।’‌ সূত্রের খবর, আজ বৃহস্পতিবার মন্ত্রীর সঙ্গে ফের বৈঠকে বসতে পারেন কুড়মি সংগঠনের নেতারা।

বন্ধ করুন