বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিরক্ত BJP বিধায়ক, বাঁশি বাজিয়ে জাতীয় সঙ্গীত থামালেন রেফারি! উঠল বিতর্কের ঝড়
প্রতীকী ছবি, সৌজন্যে পিটিআই
প্রতীকী ছবি, সৌজন্যে পিটিআই

বিরক্ত BJP বিধায়ক, বাঁশি বাজিয়ে জাতীয় সঙ্গীত থামালেন রেফারি! উঠল বিতর্কের ঝড়

  • কুলটির সাঁকতোড়িয়ার হাতিনল এলাকায় একটি ফুটবল টুর্নামেন্টে অনুষ্ঠিত হচ্ছিল। সেখানেই উপস্থিত হয়েছিলেন বিজেপির বিধায়ক অজয় পোদ্দার।

পশ্চিম বর্ধমান জেলার কুলটিতে বেশ কয়েকদিন আগে ঘটে এক অভাবনীয় ঘটনা। বিজেপি বিধায়কের বিরক্তি মেটাতে বাঁশি বাজিয়ে মাঝপথে জাতীয় সঙ্গীত বন্ধ করলেন রেফারি। ঘটনায় বিতর্কের ঝড় উঠেছে। ঠিক কী ঘটেছিল? কুলটির সাঁকতোড়িয়ার হাতিনল এলাকায় একটি ফুটবল টুর্নামেন্টে অনুষ্ঠিত হচ্ছিল। সেখানেই উপস্থিত হয়েছিলেন বিজেপির বিধায়ক অজয় পোদ্দার। মাঠে নেমে খেলোয়াড়দের সঙ্গে পরিচয় পর্ব সারছিলেন বিধায়ক। এমন সময় মাঠের মাইকে জাতীয় সঙ্গীত বেজে ওঠে। বাধা প্রাপ্ত হয়ে বেশ বিরক্ত হন বিধায়ক। আর এরপরই বাঁশি বাজিয়ে মাঝপথে জাতীয় সঙ্গীত থামান রেফারি।

রেফারির হুইসেলে জাতীয় সঙ্গীত থামে। জাতীয় সঙ্গীতের জেরে বন্ধ থাকা পরিচয় পর্ব ফের শুরু করেন বিধায়ক। ঘটনাটির ভিডিয়ো করেন উপস্থিত ব্যক্তিরা। সেই ভিডিয়ো পরে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হলে তা ভাইরাল হয়। বিতর্কের ঝড় ওঠে। বিজেপিকে তোপ দাগে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। ঘাসফুল শিবিরের জেলা নেতৃত্বের তরফে লা হয়, বিজেপির যা শিক্ষা তাতে ওদের কাছে এটাই স্বাভাবিক, ওদের সম্পর্কে কিছু বলতেই রুচিতে বাধে। আমরা মনে করি জাতীয় সঙ্গীতকে অবমাননা করেছেন বিধায়ক।

এদিকে এই বিষয়ে নিজের সাফাই দেন বিজেপির কুলটির বিধায়ক। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, 'এটা অনুষ্ঠানের সংগঠকদের ভুল। পরিচয় পর্ব চলাকালীন মাঝপথে জাতীয় সঙ্গীত বাজিয়ে দিয়েছিল। খেলোয়াড়দের সঙ্গে পরিচয় পর্বের সময় জাতীয় সঙ্গীত বাজানো ঠিক নয়। তাই বন্ধ করা হয়েছিল। পরে আবার আমরা নিয়ম-নীতি মেনে সম্মানের সঙ্গে সবাই মিলে জাতীয় সঙ্গীত গেয়েছি।' তবে অনেকেরই দাবি, এই ঘটনার মাধ্যমে জাতীয় সঙ্গীতের অবমাননা করা হয়েছে।

বন্ধ করুন