বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘বেসুরো’-দের সামলাতে সাংগঠনিক রদবদল? দিলীপকে দিল্লিতে জরুরি তলব নড্ডার
দিলীপ ঘোষ এবং জে পি নড্ডা। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
দিলীপ ঘোষ এবং জে পি নড্ডা। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

‘বেসুরো’-দের সামলাতে সাংগঠনিক রদবদল? দিলীপকে দিল্লিতে জরুরি তলব নড্ডার

  • ‘বেসুরো’-দের ডানা ছাঁটতে সাংগঠনিক রদবদলের পথও প্রশস্ত হতে পারে বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা।

বিধানসভা ভোট মিটতেই ‘বেসুরে’ গান বাজতে শুরু করেছে বঙ্গ বিজেপির অন্দর থেকে। গত কয়েকদিনে ‘বেসুরো’ নেতানেত্রীর সংখ্যা আরও বেড়েছে। সেই পরিস্থিতিতে বঙ্গ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে দিল্লিতে জরুরি ভিত্তিতে তলব করলেন সর্বভারতীয় জে পি নড্ডা।

সূত্রের খবর, আগামিকাল (রবিবার) সকাল ১১ টায় দু'জনের বৈঠক হবে। সেজন্য আজ (শনিবার) রাতেই দিল্লি রওনা দেবেন দিলীপ। সেখানে বিভিন্ন সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে সূত্রের খবর। রাজনৈতিক মহলের একাংশের ধারণা, সম্প্রতি সৌমিত্র খাঁ, বাবুল সুপ্রিয়রা যেভাবে প্রকাশ্যে ‘বেসুরো’ হয়ে বিজেপির অস্বস্তি বাড়িয়েছে, তা নিয়ে আলোচনা হতে পারে। সৌমিত্রের মতো কয়েকজন বিজেপি নেতা তো সরাসরি দিলীপের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন। সেই পরিস্থিতিতে পুরো বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজ নেবেন নড্ডা। সেইসঙ্গে ‘বেসুরো’-দের ডানা ছাঁটতে সাংগঠনিক রদবদলের পথও প্রশস্ত হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট মহলের ধারণা।

দিনকয়েক আগে আচমকা বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি পদ ছেড়ে দিয়েছিলেন সৌমিত্র। সাত ঘণ্টার ব্যবধানে পদত্যাগপত্র ফিরিয়েও নেন। তা নিয়ে সৌমিত্রকে কটাক্ষ করে দিলীপ বলেন, ‘রাজনীতিতে জোকারদের খুব গুরুত্ব থাকে।’ রাজনৈতিক মহলের মতে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিত্ব না পাওয়ায় ‘গোঁসা’ হয়েছে সৌমিত্র-সহ একাধিক বিজেপি নেতাদের। বিশেষত মন্ত্রিত্ব যাওয়ার পর নরেন্দ্র মোদীর একসময়ের নয়নের মণি বাবুল সুপ্রিয়ও বিতর্কিত মন্তব্য করেন। পালটা কটাক্ষ করেন দিলীপ। সেই ‘টানাপোড়েনে’ এখনও ইতি পড়েনি। সেই ‘অন্তর্কলহের’ জেরে রীতিমতো অস্বস্তিতে পড়েছে রাজ্য বিজেপি। সেই ‘অন্তর্কলহে’ রাশ টানতেই সম্ভবত নড্ডা দিলীপকে তড়িঘড়ি তলব করেছেন বলে মত রাজনৈতিক মহলের।

বন্ধ করুন