বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > NBU: উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের অপসারণের দাবি, তালা ভেঙে ফেলল সিপিএম
বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের বাইরে তুমুল বিক্ষোভ সিপিএমের। 

NBU: উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের অপসারণের দাবি, তালা ভেঙে ফেলল সিপিএম

  • সুবীরেশ ভট্টাচার্যের গ্রেফতারির জেরে কার্যত অভিভাবকহীন উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়। গোটা ঘটনায় লজ্জিত শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী থেকে ছাত্রছাত্রীরা। তাঁদের একাংশের মতে, এরপর আর সুবীরেশ ভট্টাচার্যের উপাচার্যের চেয়ারে বসার অধিকার নেই।

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে নাম জড়িয়েছে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুবীরেশ ভট্টাচার্যের। সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন তিনি। শুক্রবার সেই সুবীরেশকে অপসারণের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের সামনে তুমুল বিক্ষোভ শুরু করেন সিপিএমের নেতা কর্মীরা। বিক্ষোভ সামাল দিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটও বন্ধ করে দেওয়া হয়। গেটের তালা ভেঙে ফেলার চেষ্টা করেন বিক্ষোভকারীরা। সিপিএমের দার্জিলিং জেলা সম্পাদক সমন পাঠক, সিপিএম নেতা গৌতম ঘোষ, শীতল দত্ত প্রমুখ এদিন হাজির ছিলেন বিক্ষোভস্থলে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল গেটের সামনে বসে পড়েন বিক্ষোভকারীরা। তাঁদের দাবি যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তাতে মাথা হেঁট হয়ে গিয়েছে। অবিলম্বে ভিসিকে অপসারণ করতে হবে। 

সমন পাঠক বলেন, নর্থবেঙ্গল বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের কাছে গর্বের বিষয়। সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত। সমস্ত নিয়োগে অনৈতিক কাজ হয়েছে। এই ভিসি নর্থবেঙ্গলে থাকবে কেন? এই ভিসিকে অপসারণ করতে হবে। নর্থবেঙ্গলে যারা এই দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত, টিএমসি নেতাদের গ্রেফতার করতে হবে। এই টিএমসির ক্ষমতায় থাকার অধিকার নেই।

সিপিএম নেতা গৌতম ঘোষের দাবি, ভিসি চুরির দায়ে অভিযুক্ত। আমাদের গর্বের জায়গা আজ কলঙ্কিত। এর আগে বিখ্যাত শিক্ষাবিদরা এই চেয়ারে বসেছেন। এদিন আমাদের বাধা দেওয়া হয়েছে। সেকারণে আমরা তালা ভেঙেছি। কিন্তু আমরা ভেতরে ঢুকিনি। কারণ গণতান্ত্রিক আন্দোলনে আমরা বিশ্বাসী।

এদিকে সুবীরেশ ভট্টাচার্যের গ্রেফতারির জেরে কার্যত অভিভাবকহীন উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়। গোটা ঘটনায় লজ্জিত শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী থেকে ছাত্রছাত্রীরা। তাঁদের একাংশের মতে, এরপর আর সুবীরেশ ভট্টাচার্যের উপাচার্যের চেয়ারে বসার অধিকার নেই।

বন্ধ করুন