বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ঘূর্ণিঝড় ইয়াস মোকাবিলায় রাজ্যে মোতায়েন সেনা ও NDRF দল, ড্রোনে নজরদারি
ধেয়ে আসছে ইয়াস। আগেভাগেই প্রস্তুতিতে এনডিআরএফ। (ছবি সৌজন্য এন়ডিআরএফ)
ধেয়ে আসছে ইয়াস। আগেভাগেই প্রস্তুতিতে এনডিআরএফ। (ছবি সৌজন্য এন়ডিআরএফ)

ঘূর্ণিঝড় ইয়াস মোকাবিলায় রাজ্যে মোতায়েন সেনা ও NDRF দল, ড্রোনে নজরদারি

  • ৩২টি দলের মধ্যে ২২টি দল ইতিমধ্যে এই রাজ্যে পাঠানো হয়েছে।কলকাতা, হাওড়া, পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এনডিআরএফের এই সব দলকে পাঠানো হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের মোকাবিলায় জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী পাঠাচ্ছে কেন্দ্র। পশ্চিমবঙ্গে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী বা এনডিআরএফের ৩২টি দল পাঠাচ্ছে কেন্দ্র। এই ৩২টি দলের মধ্যে ২২টি দল ইতিমধ্যে এই রাজ্যে পাঠানো হয়েছে। কলকাতা, হাওড়া, পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এনডিআরএফের এই সব দলকে পাঠানো হয়েছে। একইসঙ্গে বিপর্যয় মোকাবিলায় প্রস্তুত রাখা হয়েছে ভারতীয় সেনাকেও।

ইতিমধ্যে রাজ্য সরকারের সঙ্গে বৈঠক করেছেন জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর ডিজি সত্যপ্রধান। টুইট করে তিনি জানান, উদ্ধারকাজের জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর বিমান। সাগর ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় নজরদারি জোরদার করেছে এনডিআরএফ।একাধিক জায়গায় ড্রোনের মাধ্যমে নজরদারি চলছে। এখনও পর্যন্ত ১০টি এনডিআরএফের টিম তাদের নির্দিষ্ট জায়গায় পৌঁছে গিয়েছে।এখনও পর্যন্ত ঠিক হয়েছে, যে ৩২টি এনডিআরএফের দল রাজ্যে এসেছে, তার মধ্যে ১০টি দলকে কলকাতায় কলকাতা পুরনিগমের সঙ্গে রাখা হবে। পাশাপাশি হাওড়ায় রাখা হবে একটি দলকে। পূর্ব মেদিনীপুরে রাখা হবে ৫টি দলকে।উত্তর ২৪ পরগনায় ৭টি ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৯টি দলকে রাখা হবে।

ইতিমধ্যে ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় প্রস্তুত রয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনীও। সেনার ৮ কলম সেনা ও একটি ইঞ্জিনিয়ার টাস্ক ফোর্সকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।পাশাপাশি ওড়িশার জন্য ২ কলম সেনাকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রয়োজন হলে উদ্ধারকাজে আরও সেনা লাগানো হতে পারে বলেও সেনাবাহিনী সূত্রে জানানো হচ্ছে।

বন্ধ করুন