বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কোনও ক্যামেরা ছিল না, বাংলাদেশ সীমান্তে পাওয়া চিনা ড্রোন নিয়ে জানাল বিএসএফ
ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে উদ্ধার পাওয়া ড্রোন। 

কোনও ক্যামেরা ছিল না, বাংলাদেশ সীমান্তে পাওয়া চিনা ড্রোন নিয়ে জানাল বিএসএফ

  • পেট্রাপোল থানা এলাকায় নিজের জমিতে গিয়ে একটি ড্রোন পড়ে থাকতে দেখেন এক কৃষক।

কোনও ক্যামেরা ছিল না। তবে শনিবার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ৩০০ মিটারের মধ্যে যে ড্রোন পাওয়া গিয়েছে, তা চিনে তৈরি করা হয়েছে। এমনটাই জানাল ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। ঘটনাটি উত্তর ২৪ পরগনার পেট্রাপোল থানার অন্তর্গত কালিয়ানির।

শনিবার সকালে উত্তর ২৪ পরগনায় সকাল ছ'টা নাগাদ নিজের জমিতে গিয়ে একটি ড্রোন পড়ে থাকতে দেখেন পঙ্কজ সরকার নামে এক কৃষক। ড্রোনটি ভাঙা ছিল। তিনি বলেন, সকালে মাঠে চারায় জল দিতে এসেছিলাম। এসে দেখি যে এখানে জিনিসটা পড়ে আছে। ওটা দেখে, ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। বোমা-টোমা ভাবছিলাম। সাহস হচ্ছিল না ওদিকে যেতে। ওই দিকটাই জল দিইনি তাই। পাশের জমিতে লোকজন ছিলেন। ওঁরা এলেন। ওঁরা বললেন যে এটা (ভয়ের) কিছু নয়, এটা আকাশে ওড়ে - ড্রোন হবে। তারপর ভাইকে ফোন করি। ভাই বলে যে দাদা, তুমি বাড়ি নিয়ে চলে এস। আমি থানায় ফোন করে দিচ্ছি। সেইমতো (ড্রোনটি) বাড়িতে নিয়ে চলে যাই আমি।'

ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ৩০০ মিটারের মধ্যে জমি থেকে ড্রোন উদ্ধার হওয়ায় বিষয়টি বিএসএফকে জানানো হয়। পরে ঘটনাস্থলে আসেন বিএসএফের আধিকারিকরা। তাঁরা ড্রোনটি খতিয়ে দেখেন। বিএসএফের ডিআইজি (সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ার) এসএস গুলেরিয়া বলেন, '(ড্রোনটি) এস-৫০০ মডেলের। কেউ এখনও ড্রোনটি নিজের বলে দাবি করেননি। তাতে কোনও ক্যামেরা পাইনি আমরা। '

প্রাথমিক তদন্ত অনুযায়ী, শুক্রবার রাত ১০ টা নাগাদ একটি উড়ন্ত বস্তু দেখতে পান বিপুল বক্সি অপর এক গ্রামবাসী। তা থেকে আলো জ্বলছিল। জমিতে ভেঙে পড়েছিল সেটি। বিএসএফের ডিআইজি (সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ার) বলেন, ‘তদন্ত চলছে।’

বন্ধ করুন