বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘হাফপ্যান্ট পরে প্রবেশ নিষেধ’ পঞ্চায়েত দফতরের সামনে ঝোলানো হল হুলিয়া
বিতর্কিত সেই নোটিশ।
বিতর্কিত সেই নোটিশ।

‘হাফপ্যান্ট পরে প্রবেশ নিষেধ’ পঞ্চায়েত দফতরের সামনে ঝোলানো হল হুলিয়া

  • পঞ্চায়েত অফিসের কর্মীদের একাংশের দাবি, সম্প্রতি দুয়ারে সরকার-সহ অন্য নানা কাজে পঞ্চায়েতে লোকের আনাগোনা বেড়েছে। তারই মধ্যে অনেকে হাফপ্যান্ট পরে হাজির হচ্ছেন।

ফের হাফপ্যান্ট বিতর্ক রাজ্যে। এবার হাফপ্যান্ট পরে ঢোকা যাবে না বলে নির্দেশিকা জারি হল নদিয়া জেলার এক পঞ্চায়েতে। যা নিয়ে এলাকায় শুরু হয়েছে বিতর্ক। এব্যাপারে যদিও পঞ্চায়েতের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

বুধবার সকালে নদিয়ার রামনগর ২ নম্বর পঞ্চায়েত অফিসে গিয়ে গ্রামবাসীরা দেখেন। সেখানে ঝুলছে এক নির্দেশিকা। তাতে লেখা রয়েছে, ‘হাফপ্যান্ট পড়ে কেউ অফিসে আসিবেন না’। এর পরই শুরু হয় গুঞ্জন। প্রশ্ন ওঠে কেন এই নির্দেশিকা।

পঞ্চায়েত অফিসের কর্মীদের একাংশের দাবি, সম্প্রতি দুয়ারে সরকার-সহ অন্য নানা কাজে পঞ্চায়েতে লোকের আনাগোনা বেড়েছে। তারই মধ্যে অনেকে হাফপ্যান্ট পরে হাজির হচ্ছেন। যা অশালীন বলে মনে হয়েছে পঞ্চায়েতের কয়েকজন আধিকারিকের। তাই এই সিদ্ধান্ত। তাঁদের দাবি, হাফপ্যান্ট পরা পুরুষদের পঞ্চায়েত দফতরে প্রবেশ তাঁদের জন্য অবমাননাকর বলে জানিয়েছেন কয়েকজন মহিলা কর্মী।

এই নিয়ে যদিও গ্রামবাসীরা ভিন্নমত। তাঁদের মতে, কে কী পরবেন তা তার ব্যক্তিগত পছন্দের ব্যাপার। এলাকার অনেক বাসিন্দা ভিনরাজ্যের শ্রমিকের কাজ করেন। তাঁরা হাফপ্যান্ট পরেই অভ্যস্থ। এতে অশালীনতার কী আছে? বিষয়টি নিয়ে পঞ্চায়েতের আধিকারিক ও পঞ্চায়েত প্রধানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

 

বন্ধ করুন