বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > এবার কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছাড়ার ইচ্ছা প্রকাশ ডাকসাইটে বিজেপি বিধায়কের
মিহির গোস্বামী। ফাইল ছবি
মিহির গোস্বামী। ফাইল ছবি

এবার কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছাড়ার ইচ্ছা প্রকাশ ডাকসাইটে বিজেপি বিধায়কের

  • এর আগে অবশ্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহকে চিঠি লিখে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছেড়েছিলেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়।

‌আরও একজন বিজেপি বিধায়ক কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছাড়ার ব্যাপারে ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন।এসএসজির ডিজিকে চিঠি লিখে কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তা তুলে নেওয়ার ব্যাপারে ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন নাটাবাড়ির বিজেপি বিধায়ক মিহির গোস্বামী। ভোটের আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন মিহিরবাবু। ভোটে জেতার পর এই বিজেপি বিধায়ককে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা দেওয়া হয়। কিন্তু সম্প্রতি তাঁর কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছেড়ে দেওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জোর জল্পনা তৈরি হয়েছে।

এসএসজির ডিজিকে মিহিরবাবু চিঠিতে লিখেছেন,‘‌বর্তমান রাজনৈতিক আবহে তৃণমূলের অত্যাচারে অনেক দলীয় কর্মীরাই সন্ত্রস্ত হয়ে রয়েছেন। অনেককে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে জেলবন্দি করে রাখা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তা নিয়ে ঘোরাফেরা করলে কর্মীদের মনোবল নষ্ট হবে ।এদের মধ্যে ভয় ও বিরক্তির পরিবেশ চলে আসবে।আপনারা পরিস্থিতি অনুধাবন করুন ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিন।’‌ 

যদিও এনিয়ে মিহিরবাবুকে কটাক্ষ করতে কিন্তু ছাড়েননি কোচবিহারে তৃণমূলের জেলা সভাপতি পার্থ প্রতীম রায়। তাঁর মতে, মিহির গোস্বামী নিরাপত্তা নিয়ে নাটক করছেন। উনি যথন তৃণমূলের বিধায়ক ছিলেন, তখন নিরাপত্তা নেননি। উনি বলতেন, উনি নাকি সহজ সরল জীবনযাত্রা করেন। তাই নিরাপত্তারক্ষীর প্রয়োজন নেই। আবার এখন উনি বলছেন, তৃণমূলের গুণ্ডাবাহিনীরা বিজেপির কর্মীদের ওপর সন্ত্রাস চালাচ্ছে। বিজেপি কর্মীদের নিরাপত্তা দিতে পারছেন না বলে নাকি উনি নিরাপত্তারক্ষী চাইছেন না।মিহিরবাবুর এমন দুমুখো নীতির প্রয়োজন নেই।

এর আগে অবশ্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহকে চিঠি লিখে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছেড়েছিলেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়।যে কারণ দেখিয়ে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা তুলে নেওয়ার যুক্তি দেখিয়েছিলেন লকেট, সেই একই কারণ দেখিয়ে নাটাবাড়ির বিধায়ক এবার কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছেড়ে দেওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন।

বন্ধ করুন