বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Raniganj: রানিগঞ্জে আগুনে পুড়ে মৃত্যু বৃদ্ধার, আত্মহত্যা না কি দুর্ঘটনা তদন্তে পুলিশ

Raniganj: রানিগঞ্জে আগুনে পুড়ে মৃত্যু বৃদ্ধার, আত্মহত্যা না কি দুর্ঘটনা তদন্তে পুলিশ

মৃতদেহের প্রতীকী ছবি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ছেলের সঙ্গে থাকতেন সীতাদেবী। ঘটনার সময় তার ছেলে বাড়িতে ছিলেন না। তিনি একাই ছিলেন। সেই সময় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এরপর বাড়ি থেকে ধোঁয়া এবং আগুনের শিখা দেখতে পেয়ে প্রতিবেশীরা সেখানে ছুটে এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। 

রানিগঞ্জে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা! আগুনে পুড়ে মৃত্যু হল এক বৃদ্ধার। ঘটনাটি ঘটেছে রানিগঞ্জের সিয়ারসোল রাজবাড়ী মোড় লাগোয়া পাতিপুকুরে। মৃতার নাম সীতা দুধারিয়া। অগ্নিদগ্ধ অবস্থাতে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসাকে মৃত ঘোষণা করেন। কী কারণে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ছেলের সঙ্গে থাকতেন সীতাদেবী। ঘটনার সময় তাঁর ছেলে বাড়িতে ছিলেন না। তিনি একাই ছিলেন। সেই সময় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এরপর বাড়ি থেকে ধোঁয়া এবং আগুনের শিখা দেখতে পেয়ে প্রতিবেশীরা সেখানে ছুটে এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। তারা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারলে দমকল এবং পুলিশে খবর দেন। পরে দমকল এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। প্রতিবেশীদের দাবি, তারা ওই বাড়িতে ধোঁয়া দেখতে পেয়ে সেখানে গিয়ে ডাকাডাকি করে কারও সাড়া পাননি। শেষে ঘরের দরজা ভাঙার চেষ্টা করেন। কিন্তু, সেটি লোহার হওয়ায় তা ভাঙতে পারেননি প্রতিবেশীরা। পরে পুলিশ এবং দমকল এসে ওই বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে। কিন্তু, ততক্ষণ এই বৃদ্ধার শরীরের অনেকটা অংশ পুড়ে যায়।

তখনও জীবিত ছিলেন ওই বৃদ্ধা। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়, প্রতিবেশীদের দাবি, বেশ কয়েকদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন সীতা দেবী। সেই কারণে তিনি হয়তো বাড়িতে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। যদিও এটি আত্মহত্যা না কি দুর্ঘটনা তা এখনও স্পষ্ট নয় পুলিশের কাছে। ঘটনায় তদন্তে নেমেছে রানিগঞ্জ থানার পুলিশ।

বন্ধ করুন