বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দেবীপক্ষ শুরু! আস্তাকুড়ে সদ্যোজাত কন্যাকে আগলে একদল কুকুর, কোলে তুলে নিলেন ওঁরা
সেই সদ্যোজাত শিশুকন্যা। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক
সেই সদ্যোজাত শিশুকন্যা। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক

দেবীপক্ষ শুরু! আস্তাকুড়ে সদ্যোজাত কন্যাকে আগলে একদল কুকুর, কোলে তুলে নিলেন ওঁরা

  • চিকিৎসক জানিয়েছেন, শিশুটির বয়স ১ দিন। সে একেবারে সুস্থ। তাকে আপাতত হাসপাতালেই রাখা হয়েছে। আজ, বুধবার তাকে বারাসতের এক হোমে পাঠানো হবে।

চলছে দেবীপক্ষ। উমা এসেছেন বাপের বাড়ি। এই মহামারীর মধ্যেও তাকে নিয়ে মেতে উঠেছে সকলে। তিনি তো মৃন্ময়ী। আর রক্তমাংসের উমা?‌ তার জায়গা আস্তাকুড়ে?‌ বেলঘরিয়ার কালীতলা মোড়ে ডাস্টবিন থেকে মঙ্গলবার সন্ধেয় এক সদ্যোজাত শিশুকন্যাকে কোলে তুলে নিয়েছেন দুই সহৃদয় মহিলা। এদিন ফেসবুকে ওই এলাকার বাসিন্দা এবং ওই দুই মহিলার পরিচিত সোহিনী আচার্য নামে এক তরুণী এই ঘটনার কথা জানান।

এদিন সন্ধে সাড়ে ৭টা নাগাদ বেলঘরিয়ার কালীতলা মোড়ে কান্নার আওয়াজ পেয়ে এক আস্তাকুড়ের কাছে গিয়ে ওই সদ্যোজাতকে উদ্ধার করেন দুই মহিলা। তাঁদের মধ্যে একজনের নাম সায়নী চক্রবর্তী। জানা গিয়েছে, একদল কুকুর ওই শিশুকন্যাকে আগলে রেখেছিল। সঙ্গে সঙ্গে তাকে কামারহাটির সাগরদত্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসক জানিয়েছেন, শিশুটির বয়স ১ দিন। সে একেবারে সুস্থ। সমীর ধর নামে এক ব্যক্তি বেলঘরিয়া থানার পুলিশকে খবর দেন।

সোহিনী আচার্য তাঁর ভাইরাল হওয়া ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে ওই শিশুকে হাসপাতালেই রাখা হয়। আজ, বুধবার তাকে বারাসতের এক হোমে পাঠানো হবে। ‌তিনি আক্ষেপ করে লিখেছেন, ‘দেবীপক্ষ শুরু হয়ে গিয়েছে। সোনায় মোড়া দেবীমূর্তির সামনে মাথা নত হয়ে আসে আমাদের। আর এই শতাব্দীতে দাঁড়িয়ে কন্যাসন্তানের জায়গা হয় গলির মোড়ের ডাস্টবিন। হায় রে মানুষ। হায় রে দুর্ভাগা দেশ!‌’‌

একইসঙ্গে সোহিনী আবেদন জানিয়েছেন যদি কেউ এগিয়ে এসে ফুটফুটে ওই শিশুর দায়িত্ব নেয়। তাঁর আবেদন, ‘‌যদি কোনও সহৃদয় মানুষ শিশুটির দায়িত্ব নিতে চান তবে সাগরদত্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে বা সেরকম হলে আমার সঙ্গেও যোগাযোগ করতে পারেন।’‌ হৃদয়বিদারক এই ঘটনার কথা ছড়িয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ইতিমধ্যে সোহিনীর ডাকে সারা দিয়েছেন বহু মানুষ। দত্তক নিতে চাইছেন রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া ছোট্ট উমাকে।

নীচে সোহিনী আচার্যর ফেসবুক পোস্ট—

বন্ধ করুন