বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‌আত্মঘাতী হলেন আরও এক উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী
 আত্মহত্যা (প্রতীকি ছবি)

‌আত্মঘাতী হলেন আরও এক উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী

পুলিশ সূত্রে খবর, স্বপ্নার দেহকে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। তবে তার ঘর থেকে কোনও সুইসাইড নোট পাওয়া যায়নি।

করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। কিন্তু পরীক্ষা বাতিলের জেরে আত্মঘাতী হলেন এক উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। চলতি মাসের শুরুতেই পরীক্ষা বাতিলের ঘটনা জানার পর আত্মঘাতী হন কোচবিহারের এক মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। তার এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই নদিয়ার এক ছাত্রীর আত্মঘাতীর হওয়ার ঘটনা সামনে এসেছে। এমনই দাবি স্থানীয়দের। 

জানা গিয়েছে, আত্মঘাতী ওই উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর নাম স্বপ্না হাজরা। স্বপ্নার পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, ১৮ বছরের স্বপ্না শান্তিপুরের বাগআঁচড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী ছিলেন। স্বপ্না বরাবরই পড়াশোনায় খুব ভালো ছিলেন। মাঝেমধ্যে পড়াশোনার জন্য অতিরিক্ত চাপও নিতেন তিনি। পরীক্ষা বাতিলের কথা জানার পর থেকেই বেশ কিছুদিন ধরে পরিবারের লোকের সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করে দিয়েছিলেন তিনি। সবসময়ই মনমরা হয়ে পড়ে থাকতেন তিনি। এদিন বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ স্বপ্নার দাদা পলাশ বোনকে ডাকতে গিয়ে দেখেন, গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ঝুলছে তাঁর দেহ। সঙ্গে সঙ্গে মা'কে গিয়ে খবর দেন। প্রতিবেশীরাও পুরো ব্যাপারটি জেনে যায়। তড়িঘড়ি স্বপ্নাকে শান্তিপুর স্টেট মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করানো হয়। সেখানেই চিকিৎসকরা স্বপ্নাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

বন্ধ করুন