বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বালিখাদানের দখল নিয়ে তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ১
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শেখ পান্নালাল।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শেখ পান্নালাল।

বালিখাদানের দখল নিয়ে তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ১

  • আহতের পরিবারের দাবি, তাদের লক্ষ করে বোমা ছোড়ে দুষ্কৃতীরা। এলাকা দখলের জন্য তাঁর ছেলের উপর হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেন শেখ পান্নালালের মা মদিনা বিবি। তবে তাঁর দাবি গুলি চালিয়েছে বিজেপি।

বালিখাদানের দখলকে কেন্দ্র করে দলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হলেন এক তৃণমূলকর্মী। ঘটনা পূর্ব বর্ধমানের ইদিলপুরের। আহত তৃণমূলকর্মীর নাম শেখ পান্নালাল ওরফে ফটিক।

ঘটনার সূত্রপাত শনিবার বিকেলে। বর্ধমান শহরের সদরঘাট এলাকায় পিকনিক করতে গিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ বাঁধে। সাময়িকভাবে সেই অশান্তি মিটে গেলেও রবিবার সকালে শেখ পান্নালাল নামে ওই তৃণমূলকর্মী বালিখাদানে গেলে তাঁকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। তখনই তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় সুনীল চৌধুরী নামে অপর এক তৃণমূলকর্মী। সেই গুলি শেখ পান্নালালের পায়ে লাগে। আহত যুবক এখন বর্ধমান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

আহতের পরিবারের দাবি, তাদের লক্ষ করে বোমা ছোড়ে দুষ্কৃতীরা। এলাকা দখলের জন্য তাঁর ছেলের উপর হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেন শেখ পান্নালালের মা মদিনা বিবি। তবে তাঁর দাবি গুলি চালিয়েছে বিজেপি।

বালি ব্যবসায়ী রাজনাথ চৌধুরী জানান, শেখ ফটিক রবিবার সকালে দলবল নিয়ে তার ভাই অরুণ চৌধুরীর বাড়িতে হামলা করে। অরুণ চৌধুরীর বাড়িতে হামলার পাশাপাশি রাজনাথবাবুর বাড়িতেও হামলা করা হয় বলে অভিযোগ। রাজনাথ চৌধুরীর একটি মোটর সাইকেল ভাঙচুর করে ফটিকের দলবল। বাড়ির আসবাবপত্র ভাঙচুর কর তারা। তখন শেখ পান্নালাল নিজেই তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছে বলে পালটা অভিযোগ করেন রাজনাথ চৌধুরী। তবে পান্নালাল কিভাবে গুলিবিদ্ধ হল সেবিষয়ে কিছু বলতে অস্বীকার করেছেন তিনি। 

ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় বর্ধমান থানার পুলিশ বাহিনী। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। এলাকায় এই ধরনের ঘটনা ঘটায় আতঙ্কে এলাকার মানুষজন। গোটা এলাকাজুড়ে চলছে পুলিশি টহলদারি।

 

বন্ধ করুন