বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > অপুষ্টিজনিত সমস্যা ও পর্যাপ্ত দুধের অভাবে মৃত্যু বেঙ্গল সাফারির বাঘের শাবকের

অপুষ্টিজনিত সমস্যা ও পর্যাপ্ত দুধের অভাবে মৃত্যু বেঙ্গল সাফারির বাঘের শাবকের

সদ্যোজাত শাবকদের নিয়ে শীলা। ছবি সৌজন্যে এএনআই।

এর ফলে বর্তমানে বেঙ্গল সাফারিতে বাঘের সংখ্যা দাঁড়াল ১১টিতে। এই নিয়ে পরপর তিনবার মা হয়েছে বাঘিনী শিলা।

গত ১০ মার্চ ৫ শাবকের জন্ম দিয়েছিল বেঙ্গল সাফারির রয়্যাল বেঙ্গল টাইগ্রেস শীলা। তার মধ্যে মৃত্যু হল একটি শাবকের। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে শিলার একটি শাবক মারা গিয়েছে বলে সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে। পাঁচটি শাবকের মধ্যে সবচেয়ে কনিষ্ঠ শাবকটি গতকাল মারা গিয়েছে। বেঙ্গল সাফারি পার্কের ডিরেক্টর ডিএস শেরপা জানিয়েছেন, ‘জন্মের পর থেকেই ওই শাবকের ওজন কম থাকার পাশাপাশি অপুষ্টিজনিত সমস্যা ছিল। পর্যাপ্ত মায়ের দুধ না পাওয়ায় হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে ওই শাবক মারা গিয়েছে।’ এরফলে বর্তমানে বেঙ্গল সাফারিতে বাঘের সংখ্যা দাঁড়াল ১১টিতে।

এই নিয়ে পরপর তিনবার মা হয়েছে বাঘিনী শীলা। বেঙ্গল সাফারি পার্কে আসার পর প্রথম ২০১৮ সালে তিনটি শাবকের জন্ম দিয়েছিল শিলা। সেই সময় তার একটি শাবক মারা গিয়েছিল। এরপর ২০২০ সালে আরও তিনটি শাবকের জন্ম দিয়েছিল এই বাঘিনী। প্রসঙ্গত, রাজ্যে বেঙ্গল সাফারি পার্কেই একমাত্র বাঘের প্রজনন ঘটাতে সাফল্য পেয়েছে বনদফতর। ইতিমধ্যেই বেঙ্গল সাফারিকে বাঘের প্রজনন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে কেন্দ্রের কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। সেই অনুমতি মিলেছে। সূত্রের খবর দ্রুতই এই পার্কে প্রজনন কেন্দ্র চালু হয়ে যাবে।

এর আগে শীলার প্রজননের সময় তার পুরুষ সঙ্গী ছিল স্নেহাশীষ নামে এক রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। পরে তাকে অন্য চিড়িয়াখানায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়। বর্তমানে শিলার সঙ্গী হিসেবে রয়েছে ভিভান নামে অন্য একটি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। তবে সন্তান প্রসব করায় তাকে বর্তমানে আলাদা রাখা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

বন্ধ করুন