বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 21 July: শহিদ দিবস উপলক্ষ্যে প্রচুর বাস রিজার্ভ, ‘কার অসুবিধা হচ্ছে দেখে লাভ নেই’, বললেন কৃষ্ণেন্দু
রাস্তায় মিলছে না বেসরকারি বাস।

21 July: শহিদ দিবস উপলক্ষ্যে প্রচুর বাস রিজার্ভ, ‘কার অসুবিধা হচ্ছে দেখে লাভ নেই’, বললেন কৃষ্ণেন্দু

  • ধর্মতলার শহিদ দিবসকে তীর্থযাত্রার সঙ্গে তুলনা করে তিনি বলেন, ‘তীর্থযাত্রীরা তীর্থস্থানে যাবেন, একুশে জুলাইকে তীর্থযাত্রা বলা যেতে পারে। সেখানে কার কী অসুবিধা হচ্ছে দেখে লাভ নেই।’ বেসরকারি বাস রিজার্ভ করা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘গত দু'বছর করোনার জন্য বন্ধ ছিল। তবে এবার রেকর্ড।’

আগামীকাল শহিদ দিবস। সেই উপলক্ষে আজ থেকেই বিভিন্ন জেলা থেকে লোকসমাগম হতে শুরু করেছে কলকাতায়। কেউ ট্রেনে, কেউ গাড়িতে আবার কেউ বাসে করে পৌঁছচ্ছেন কলকাতা। অধিকাংশ কর্মীরাই দলের নেতাদের ভাড়া করে দেওয়া বাসে শহিদ দিবস উপলক্ষে কলকাতা যাচ্ছেন। আর এই পরিস্থিতিতে বেসরকারি বাসের অভাব দেখা দিয়েছে কলকাতা থেকে শুরু করে জেলায়। শহিদ দিবস উপলক্ষে প্রচুর বেসরকারি তৃণমূল নেতৃত্ব ভাড়া করার ফলে রাস্তায় দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকেও মিলছে না বাস। যার ফলে সমস্যায় পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা। তবে সাধারণ যাত্রীদের সেই সমস্যাকে মোটেই গুরুত্ব দিতে রাজি নন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী।

সাধারণ মানুষের অসুবিধা নিয়ে কৃষ্ণেন্দুকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমাদের কাজটাই হল মূল কাজ। কার কী অসুবিধা হচ্ছে দেখে লাভ নেই।’ ধর্মতলার শহিদ দিবসকে তীর্থযাত্রার সঙ্গে তুলনা করে তিনি বলেন, ‘তীর্থযাত্রীরা তীর্থস্থানে যাবেন, একুশে জুলাইকে তীর্থযাত্রা বলা যেতে পারে। সেখানে কার কী অসুবিধা হচ্ছে দেখে লাভ নেই।’ বেসরকারি বাস রিজার্ভ করা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘গত দু'বছর করোনার জন্য বন্ধ ছিল। তবে এবার রেকর্ড। যে যা পেরেছে গাড়ি, বাস ভাড়া করেছে ধর্মতলা যাওয়ার জন্য।’

অন্যদিকে, বেসরকারি বাস কম থাকায় সরকারি বাস এবং অন্যান্য পরিবহণের উপর ভরসা করতে হচ্ছে যাত্রীদের। স্বাভাবিকের তুলনায় রাস্তায় অনেক বাস কম থাকায় সমস্যায় পড়েন তারা। নিত্যযাত্রী তো বটেই এমনকি চিকিৎসা সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে ও রাস্তায় বেরিয়েও এদিন নাকাল হতে হয় বহু মানুষকে। যদিও বাস মালিকরা জানাচ্ছেন আগামী পরশু থেকে আবার বাস চলাচল স্বাভাবিক হবে।

বন্ধ করুন