বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মেয়ের জন্য ছেলে দেখতে এসেছিলেন, 'ভিড়ের চাপে ট্রেন থেকে পড়ে' মৃত্যু প্রৌঢ়ের
মেয়ের জন্য ছেলে দেখতে এসেছিলেন, 'ভিড় ট্রেন থেকে পড়ে' মৃত্যু প্রৌঢ়ের। (ছবিটি প্রতীকী)
মেয়ের জন্য ছেলে দেখতে এসেছিলেন, 'ভিড় ট্রেন থেকে পড়ে' মৃত্যু প্রৌঢ়ের। (ছবিটি প্রতীকী)

মেয়ের জন্য ছেলে দেখতে এসেছিলেন, 'ভিড়ের চাপে ট্রেন থেকে পড়ে' মৃত্যু প্রৌঢ়ের

আর জি কর হাসপাতালে নিয়ে আসার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।

‌রাজ্যে কড়া বিধিনিষেধ আরোপের দ্বিতীয় দিনেও লোকাল ট্রেনে প্রচণ্ড ভিড়। আর সেই ভিড়ের চাপে ট্রেন থেকে পড়ে গিয়ে মৃত্যু হল এক রেলযাত্রীর। এমনই দাবি করেছে মৃতের পরিবার। এই ঘটনাটি ঘটেছে ডানকুনি ও বেলানগর স্টেশনের মধ্যে।

এদিন ডানকুনি থেকে খড়্গপুরে যাচ্ছিলেন ৫৫ বছরের চন্দন প্রচণ্ড। পরিবারের দাবি, ডানকুনিতে তাঁর এক আত্মীয়ের বাড়িতে এসেছিলেন চন্দন। এদিন সকালে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। ফেরার পথে ট্রেনে উঠে ভিড় সামলাতে না পেরে পড়ে যান তিনি। ডানকুনি ও বেলানগর স্টেশনের মধ্যবর্তী জায়গায় তিনি পড়ে যান। এরপর জিআরপির সাহায্য নিয়ে সহযাত্রীরা চন্দনকে প্রথমে উত্তরপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাঁকে কলকাতার আর জি কর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। অ্যাম্বুলেন্সে করে নিয়ে যাওয়ার পথেই তাঁর মৃত্যু হয়। তখন তাঁকে ওই অ্যাম্বুলেন্সে করেই উত্তরপাড়া হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে চন্দনের এক আত্মীয় জানান, 'চন্দন তাঁর সম্পর্কে জামাইবাবু হন। তাঁর মেয়ের জন্য ছেলে দেখতে এসেছিলেন তিনি। তিনটে ট্রেন বাতিল হয়ে যায়। এরপর যখন ট্রেন আসে, তখন প্রচণ্ড ভিড়ের মধ্যে ঠেলাঠেলি করে উঠতে হয় চন্দনবাবুকে। সেই সময়ই পা পিছলে ট্রেন থেকে পড়ে যান তিনি। মাথায় প্রচণ্ড চোট পান। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ঠিকই। কিন্তু তারপর সব শেষ।'

বন্ধ করুন