বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Krishnanagar: যন্ত্রণা নিয়ে নার্সের কাছে ছুটে গেলেন রোগী, মিলল না চিকিৎসা, অবশেষে মৃত্যু
রোগীর মৃত্যুতে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ। প্রতীকী ছবি।
রোগীর মৃত্যুতে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ। প্রতীকী ছবি।

Krishnanagar: যন্ত্রণা নিয়ে নার্সের কাছে ছুটে গেলেন রোগী, মিলল না চিকিৎসা, অবশেষে মৃত্যু

  • মৃতার নাম জেসমিনা মন্ডল। তিনি চাপড়া ব্লকের গুনরা গ্রামের বাসিন্দা। বয়স ২৬ বছর। অভিযোগ, বুকে যন্ত্রণা শুরু হওয়ায় গতকাল সকাল দশটা নাগাদ রোগীকে কৃষ্ণনগর জেলা হাসপাতালে নিয়ে যায় তার পরিবার।

রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ উঠল কৃষ্ণনগর জেলা হাসপাতালে। এই অভিযোগকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। হাসপাতালের নার্সদের ঘরের সামনে মৃতদেহ দীর্ঘক্ষণ ধরে ফেলে রাখা হয়েছিল বলে অভিযোগ রোগীর পরিবারের। তাদের অভিযোগ, রোগী আশঙ্কাজনক অবস্থায় থাকা সত্ত্বেও তাঁকে আইসিইউ-তে নিয়ে যাওয়া হয়নি। চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকের কাছে অনুরোধ জানালেও রোগীর চিকিৎসা করা হয়নি বলে তাদের অভিযোগ।

পারিবারিক সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতার নাম জেসমিনা মন্ডল। তিনি চাপড়া ব্লকের গুনরা গ্রামের বাসিন্দা। বয়স ২৬ বছর। অভিযোগ, বুকে যন্ত্রণা শুরু হওয়ায় গতকাল সকাল দশটা নাগাদ রোগিণীকে কৃষ্ণনগর জেলা হাসপাতালে নিয়ে যায় তার পরিবার। কিন্তু, আইসিইউতে বেড না থাকায় রোগীকে বাইরের বেড়ে রেখে দেওয়া হয় তাকে। রাতের দিকে যন্ত্রণা বাড়লেও তার কোনও চিকিৎসা করা হয়নি বলে অভিযোগ। এমনকি যন্ত্রণা সইতে না পেরে নিজেই নার্সের কাছে ছুটে গিয়েছিলেন ওই রোগী। কিন্তু, তারপরেও চিকিৎসা করা হয়নি বলে অভিযোগ। পরে রাতেই নার্সদের ঘরের সামনে মৃত্যু হয় রোগীর।

পরিবারের অভিযোগ সারারাত সিস্টারদের ঘরের সামনে পড়েছিল তাদের মেয়ের দেহ। এমনকি রাতে পরিবারের কাউকে তার সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। হাসপাতালের কর্মীরাই সকালে তার মৃতদেহ তুলে বেডে শুইয়ে দেয়। রোগীর বাবা মায়ের অভিযোগ, চিকিৎসার গাফিলতির কারণেই তাদের মেয়ের মৃত্যু হয়েছে।

বন্ধ করুন