বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > অনীতকে ঘিরে জনউচ্ছাস পাহাড়ে, বিজেপি সাংসদের কুশপুতুলে জুতোর মালা
খাদা পরিয়ে কার্শিয়াংয়ে অনীত থাপাকে বরণ করে নেওয়া হয়। (নিজস্ব চিত্র)
খাদা পরিয়ে কার্শিয়াংয়ে অনীত থাপাকে বরণ করে নেওয়া হয়। (নিজস্ব চিত্র)

অনীতকে ঘিরে জনউচ্ছাস পাহাড়ে, বিজেপি সাংসদের কুশপুতুলে জুতোর মালা

  • জুতোর মালা পরিয়ে বিজেপি সাংসদের কুশপুতুল নিয়ে বিক্ষোভ দেখাল ভারতীপন্থী অখিল ভারতীয় গোর্খা লিগ।

রাস্তায় তিলধারণের জায়গা নেই। বহু মানুষ পা মেলালেন পদযাত্রায়। খাদা পরিয়ে ঘরের ছেলে অনীত থাপাকে বরণ করে নিলেন সাধারণ মানুষ। আর অনীত শোনালেন নতুন স্বপ্নের কথা। উন্নয়নের কথা। আর তার সঙ্গেই গোর্খাল্যান্ডের দাবিটিকেও ভাসিয়ে রাখলেন তিনি। তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, একথা তো আগে বিমল গুরুংয়ের গলাতেও শোনা যেত। তবে তাঁর সঙ্গে অনীত থাপার ফারাকটা কোথায়? তবে সেই ফারাকটাই নির্দিষ্ট করে দিলেন অনীত নিজেই। তিনি বলেন, ‘গোর্খাল্যান্ডের দাবি থাকবেই। তা আদায়ের জন্য পৃথক টিম গঠন করা হয়েছে। ওই টিমই পুরো বিষয়টি স্টাডি করবে। কী উপায়ে দাবি আদায় হবে তা ঠিক করবে। কিন্তু কখনই পাহাড় জ্বালিয়ে দাবি আদায় করা হবে না।’  আসলে ঠিক এখানেই বিমল গুরুংয়ের নেতৃত্বে পাহাড়ের সেই ভয়াবহ আন্দোলনের দিনগুলির কথা আরও একবার মনে করিয়ে দিলেন গুরুং বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা অনীত থাপা। 

 

রাস্তায় তিলধারণের জায়গা নেই। বহু মানুষ পা মেলালেন পদযাত্রায়। খাদা পরিয়ে ঘরের ছেলেকে বরণ করে নিলেন সাধারণ মানুষ। আর অনীত শোনালেন নতুন স্বপ্নের কথা। উন্নয়নের কথা। আর তার সঙ্গেই গোর্খাল্যান্ডের দাবিটিকেও ভাসিয়ে রাখলেন তিনি। তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, একথা তো আগে বিমল গুরুংয়ের গলাতেও শোনা যেত। তবে তাঁর সঙ্গে অনীত থাপার ফারাকটা কোথায়? তবে সেই ফারাকটাই নির্দিষ্ট করে দিলেন অনীত নিজেই। তিনি বলেন, ‘গোর্খাল্যান্ডের দাবি থাকবেই। তা আদায়ের জন্য পৃথক টিম গঠন করা হয়েছে। ওই টিমই পুরো বিষয়টি স্টাডি করবে। কী উপায়ে দাবি আদায় হবে তা ঠিক করবে। কিন্তু কখনই পাহাড় জ্বালিয়ে দাবি আদায় করা হবে না।’  আসলে ঠিক এখানেই বিমল গুরুংয়ের নেতৃত্বে পাহাড়ের সেই ভয়াবহ আন্দোলনের দিনগুলির কথা আরও একবার মনে করিয়ে দিলেন গুরুং বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা অনীত থাপা। 

|#+|

এর সঙ্গেই তিনি বলেন, ‘অন্য আর একটি টিম পাহাড়ের উন্নয়নের দিকটা দেখবে। পাহাড়ের সার্বিক উন্নয়ন, বেকার সমস্যার সমাধানই মূল লক্ষ্য। নতুনভাবে দার্জিলিং গড়তে চাই। সকলের সমর্থন চাই।’ নিজের শহরে দাঁড়িয়ে অভ্যর্থনায় ভেসে গিয়ে জানালেন ভারতীয় গোর্খা প্রজাতান্ত্রিক মোর্চার সভাপতি অনীত থাপা। এদিকে একদিকে যখন অনীতকে ঘিরে জন উচ্ছাস তখনই জুতোর মালা পরিয়ে বিজেপি সাংসদের কুশপুতুল নিয়ে বিক্ষোভ দেখাল ভারতীপন্থী অখিল ভারতীয় গোর্খা লিগ। সংগঠনের দাবি সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের কথা জানিয়েছিলেন সাংসদ রাজু বিস্তা।  সেই বৈঠক কোথায় গেল প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা। এবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কুশপুতুল নিয়ে বিক্ষোভেরও প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাঁরা।

 

বন্ধ করুন