বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বন দফতরের বাংলোয় থাকতে চান? আদৌও কি বুকিং করতে পারবেন? জানুন নয়া নিয়ম
সরকারি নিয়ম অনুসারে, বন দফতরের অধীনে থাকা সব বংলোর ২৫ শতাংশ দফতরের হাতে রেখে বাকি অংশ পর্যটকদের হাতে খুলে দেওয়ার নিয়ম ছিল।
সরকারি নিয়ম অনুসারে, বন দফতরের অধীনে থাকা সব বংলোর ২৫ শতাংশ দফতরের হাতে রেখে বাকি অংশ পর্যটকদের হাতে খুলে দেওয়ার নিয়ম ছিল।

বন দফতরের বাংলোয় থাকতে চান? আদৌও কি বুকিং করতে পারবেন? জানুন নয়া নিয়ম

সরকারি নিয়ম অনুসারে, বন দফতরের অধীনে থাকা সব বংলোর ২৫ শতাংশ দফতরের হাতে রেখে বাকি অংশ পর্যটকদের হাতে খুলে দেওয়ার নিয়ম ছিল।

রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। সেই কথা মাথায় রেখে এবার পর্যটকদের জন্য বন দফতরের বাংলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল প্রশাসন। ইতিমধ্যে রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় পর্যটনকেন্দ্রগুলি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এবার বন দফতরের বাংলোও পর্যটকদের জন্য বন্ধ রাখা হল।

এই প্রসঙ্গে রাজ্যের বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানান, ‘‌করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বাড়ছে। তাই বন দফতরের বাংলোগুলিতে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থাকছে। এর ফলে বন দফতরের আধিকারিক হোন, বনকর্মী হোন বা পর্যটক হোন, যে কোনও ব্যক্তির সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা থাকছে। এই ঝুঁকি এড়ানোর জন্যই আপাতত বন দফতরের তরফে কোনও পর্যটককে থাকতে দেওয়া হবে না। কোনও বুকিংও বন দফতর নেবে না।’‌

উল্লেখ্য, সরকারি নিয়ম অনুসারে বন দফতরের অধীনে থাকা সব বংলোর ২৫ শতাংশ দফতরের হাতে রেখে বাকি অংশ পর্যটকদের হাতে খুলে দেওয়ার নিয়ম ছিল। অতিথি নিবাসের একটা অংশ পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়ায় একদিকে যেমন পর্যটকদের সুবিধা হত, অন্যদিকে তেমনি বন দফতরের বাড়তি পাওনা হত। কিন্তু বাংলো বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে পর্যটকরা যেমন সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন, তেমনি বন দফতরের আয়ও কমল।

আয়ও কমল।

বন্ধ করুন