বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হিংসার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়তে বললেও মতুয়া মেলায় CAA নিয়ে চুপ মোদী
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মতুয়া মহামেলায় ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।

হিংসার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়তে বললেও মতুয়া মেলায় CAA নিয়ে চুপ মোদী

  • মতুয়া মেলায় CAA নিয়ে একটি শব্দও খরচ করলেন না প্রধানমন্ত্রী

ঠাকুরনগরে মতুয়া মেলায় ভার্চুয়াল ভাষণে CAA নিয়ে একটা শব্দও বললেন না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বদলে রাজ্যে হিংসার বিরুদ্ধে মতুয়া সমাজকে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানালেন তিনি। ফলে CAA নিয়ে নতুন অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে মতুয়াদের মনে।

মঙ্গলবার থেকে উত্তর ২৪ পরগনার ঠাকুরনগরে হরিচাঁদ ঠাকুরের জন্মদিন উপলক্ষে শুরু হয়েছে মতুয়া মেলা। মেলার উদ্বোধনী দিনে সেখানে ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মঙ্গলবার রাত ৯.৩০ মিনিট নাগাদ দিল্লি থেকে ভিডিয়ো কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে মেলায় আগত ভক্তদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন তিনি। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে মন ভরল না মতুয়াদের।

CAA লাগু নিয়ে প্রায় ২ বছর ধরে কেন্দ্রের দিকে চেয়ে রয়েছেন মতুয়ারা। তবে করোনা না মিটলে এব্যাপারে পদক্ষেপ করা যাবে না বলে জানিয়েছেিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। আগামী ৩১ মার্চের পর থেকে দেশে উঠে যাচ্ছে করোনার যাবতীয় বিধিনিষেধ। তার আগে মতুয়া মেলায় প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে CAA নিয়ে কোনও আশ্বাস মিলতে পারে বলে আশা করেছিলেন অনেকে। কিন্তু সেই আশা পূরণ করলেন না মোদী।

এদিনের ভাষণে সংমাজ সংস্কারে হরিচাঁদ ঠাকুরের ভূমিকা স্মরণ করিয়ে তিনি বলেন, ‘সমাজ ও পরিবারের প্রতি আমাদের দায়িত্ব স্মরণ করিয়েছেন হরিচাঁদ ঠাকুর। এই দায়িত্ব বোধই আমাদের রাষ্ট্রগঠনের কাজে ব্যবহার করতে হবে। আমাদের সংবিধান আমাদের অনেক অধিকার দেয়। আমাদের দায়িত্ব আমরা সঠিক ভাবে পালন করলেই সেই অধিকারগুলোকে সুরক্ষিত রাখতে পারব। তাই আজ আমি মতুয়া সমাজের সদস্যদের কাছে অনুরোধ করব, সমাজ থেকে দুর্নীতি নির্মূল করতে আমাদের আরও সচেতনতা বৃদ্ধিতে জোর দিতে হবে। কোথাও কারও ওপর নির্যাতন হলে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই সরব হোন। এটা সমাজ ও রাষ্ট্রের প্রতি আমাদের কর্তব্য। রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করা আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকার। কিন্তু রাজনৈতিক বিরোধিতার জন্য কাউকে হিংসার আশ্রয় নিয়ে ভয় দেখিয়ে কেউ বাধা দিলে তা অন্যের অধিকার হরণ করছে। হিংসা অরাজকতার ভাবনা সমাজে কোথাও থাকলে তার বিরোধিতা করা উচিত’।

নাম না করলেও রাজ্যে লাগাতার হিংসাপ ঘটনায় যে তিনি উদ্বিগ্ন তা স্পষ্ট করেছেন মোদী। প্রধানমন্ত্রীর এদিনের ভাষণের পর ফের প্রশ্ন উঠেছে, CAA কার্যকরের দিন তারিখ জানতে আর কতদিন অপেক্ষা করতে হবে মতুয়াদের?

 

বন্ধ করুন