বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সিগারেট খেতে বাধা দেওয়ায় সিভিক ভলেন্টিয়ারকে মারধর, গ্রেফতার তৃণমূল প্রধানসহ ৮

সিগারেট খেতে বাধা দেওয়ায় সিভিক ভলেন্টিয়ারকে মারধর, গ্রেফতার তৃণমূল প্রধানসহ ৮

ধৃত পঞ্চায়েত প্রধান। নিজস্ব ছবি।

ধৃত তৃণমূল প্রধানের নাম ধরণীকান্ত বর্মন। তিনি অন্দরন ফুলবাড়ি ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান। আক্রান্ত সিভিক ভলেন্টিয়ারের নাম শহিদুল সরকার।

মেডিকেল ক্যাম্পে সিগারেট খেতে বাধা দিয়েছিলেন সিভিক ভলেন্টিয়ার। সেই ক্ষোভেই কোচবিহারের তুফানগঞ্জের ওই সিভিক ভলেন্টিয়ারকে মারধর করলেন স্থানীয় তৃণমূল প্রধান। এমনই অভিযোগে ওই তৃণমূল প্রধানকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃত তৃণমূল প্রধানের নাম ধরণীকান্ত বর্মন। তিনি অন্দরন ফুলবাড়ি ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান। আক্রান্ত সিভিক ভলেন্টিয়ারের নাম শহিদুল সরকার।

অভিযোগ, শনিবার বিকেলে তুফানগঞ্জ মহকুমা ক্রিড়া সংস্থার মাঠে পুলিশের ম্যাচ চলছিল। সেই সময় মেডিকেল ক্যাম্পে সিগারেট খাচ্ছিলেন পঞ্চায়েত প্রধান। খেলা পরিচালনার দায়িত্বে থাকা ওই সিভিক ভলেন্টিয়ারের নজরে বিষয়টি আসতেই তিনি প্রধানকে সরাসরি গিয়েধূমপান করতে নিষেধ করেন। এরপরেই অভিযুক্ত প্রধান তাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। সমস্যা হয় শনিবার রাতে। সিভিক ভলেন্টিয়ারের অভিযোগ ,পঞ্চায়েত প্রধান ২০-২৫ জন লোক নিয়ে তার বাড়িতে থাকা দোকানে ভাঙচুর করেন এবং তাকে মারধর করেন। এরপরেই তিনি থানায় অভিযোগ করেন।

অভিযোগ পাওয়ার পর রবিবার পঞ্চায়েত প্রধান সহ ৮ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সূত্রের খবর, পঞ্চায়েত প্রধানকে গ্রেফতার করতে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট বৃষ্টি শুরু করেন তার সমর্থকরা। পরে ধৃতদের মহকুমা দায়রা আদালতে তোলা হলে বিচারক তাদের ৮ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন । তাদের গ্রেফতারের পর এই ঘটনায় আরও একজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বন্ধ করুন