বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হাথরাসের নির্যাতিতার সঙ্গে সীতার যোগ টানার অভিযোগ,কল্যাণের বিরুদ্ধে দায়ের অভিযোগ
তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

হাথরাসের নির্যাতিতার সঙ্গে সীতার যোগ টানার অভিযোগ,কল্যাণের বিরুদ্ধে দায়ের অভিযোগ

  • বিজেপির অভিযোগ, হিন্দু ধর্মের ভাবাবেগে আঘাত করেছেন কল্যাণ। 

ভোটের আগে হিন্দু ধর্মের ভাবাবেগ নিয়ে সরব হল বিজেপি। হাথরাসের নির্যাতিত তরুণীর সঙ্গে সীতার তুলনা টানার অভিযোগে তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে হাওড়ার গোলাবাড়ি থানায় অভিযোগ দায়ের করলেন বিজেপির যুব মোর্চার সদস্য আশিস জয়সওয়াল।

গত শনিবার ব্যারাকপুরে একটি জনসভায় শ্রীরামপুরের সাংসদ বলেন, ‘সীতা রামের কাছে গিয়েছিলেন এবং বলেছিলেন, আমি ভাগ্যবান যে রাবণ অপহরণ করেছিল। যদি মাথায় গেরুয়া ফেট্টি পরা তোমার চ্যালারা হত, তাহলে উত্তরপ্রদেশের হাথরাসের নির্যাতিতার মতো আমার পরিণতি হত।’

বিধানসভা ভোটের আগে সেই মন্তব্যের নিয়ে আক্রমণ শানাতে কোনওরকম কসুর ছাড়েনি বিজেপি। হিন্দু ধর্মের ভাবাবেগে আঘাতের পাশাপাশি তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে ‘তোষামোদের রাজনীতির’ অভিযোগ তোলা হয়েছে। বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালবিয়া বলেন, ‘সীতা মাতার বিরুদ্ধে কুরুচিকর মন্তব্য করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। দাবি করেছেন, তিনি (সীতা) ভগবান রামকে বলেছেন আমি ভাগ্যবান যে রাবণ অপহরণ করেছিল। যদি মাথায় গেরুয়া ফেট্টি পরা তোমার চ্যালারা হত, তাহলে উত্তরপ্রদেশের হাথরাসের নির্যাতিতার মতো আমার পরিণতি হত। হিন্দু ভাবাবেগ আঘাত দেওয়া কি পিসির তোষামোদের নীতি?’

সেই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে জয়সওয়াল যে অভিযোগ দায়ের করেছেন, তাতে বলা হয়েছে, ‘সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় যে ভাষা ব্যবহার করেছেন, তাতে পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি ভারতের কোটি কোটি হিন্দুর ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করেছে। বিশ্বজুড়ে হিন্দুরা সীতার আরাধনা করেন।’ 

বিষয়টি নিয়ে হাওড়া পুলিশের শীর্ষ আধিকারিকরা কোনও মন্তব্য করতে চাননি। তৃণমূলের শীর্ষ নেতারাও বিষয়টি এড়িয়ে গিয়েছেন। তাঁদের বক্তব্য, বিষয়টি নিয়ে শুধুমাত্র কল্যাণ মুখ খুলতে পারেন, যেহেতু তিনি মন্তব্য করেছেন। যদিও ফোন ধরেননি কল্যাণ এবং মেসেজের উত্তর দেননি।

বন্ধ করুন