বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Barakpore: বারাকপুর থেকে উদ্ধার নদিয়ার বাবুসোনার মুণ্ডুহীন দেহ, চাঞ্চল্য এলাকায়
মৃতদেহের প্রতীকী ছবি।

Barakpore: বারাকপুর থেকে উদ্ধার নদিয়ার বাবুসোনার মুণ্ডুহীন দেহ, চাঞ্চল্য এলাকায়

  • প্রসেনজিৎ ঘোষ নামে আরও এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারা খুনের কথা স্বীকার করে নেয়। এরপর তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ বাবুসোনার মুণ্ডু উদ্ধার করে। তারপরেও তারা দেহটি খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। অবশেষে গতকাল তার দেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

গত ২০ অগস্ট খুন হয়েছিলেন নদিয়ার ধুবুলিয়ার বাসিন্দা বাবুসোনা ঘোষ। গলা কেটে তাকে খুন করা হয়েছিল। আগেই তার মুণ্ডু উদ্ধার করেছিল পুলিশ। তবে তার দেহ খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। অবশেষে গতকাল বারাকপুরের মঙ্গলপাণ্ডে ঘাট থেকে তার মুণ্ডুহীন দেহ উদ্ধার করল পুলিশ। উদ্ধারের পর তার পরিবার দেহটি সনাক্ত করেছে। দেহটি ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ।

গতকাল বারাকপুরের মঙ্গল পাণ্ডে ঘাটে মুণ্ডুহীন দেহ ভেসে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। তারাই পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে। এরপরে দেহটি শনাক্তের জন্য তার পরিবারের সদস্যদের ডেকে পাঠায় পুলিশ। বিবাহিত বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে বাবুসোনাকে গলা কেটে খুন করার অভিযোগ উঠেছিল। নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জের বীরপাড়ায় বাবুসোনাকে গত ২০ অগস্ট বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় প্রহ্লাদ ঘোষ নামে এক ব্যক্তি। এরপর প্রহ্লাদ ও তার স্ত্রী নমিতা ঘোষ সহ আরও দুই আত্মীয় গলায় প্রথমে ফাঁস দিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন করে। তারপরে দেহ থেকে তার মুণ্ডু আলাদা করে নদিতে ভাসিয়ে দেয়।

এদিকে তিন চার দিন হয়ে যাওয়ার পরেও বাবুসোনার কোনও খোঁজ খবর না পাওয়ায় ২৪ অগস্ট ধুবুলিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করে তার পরিবার। সেই ঘটনার তদন্ত নেমে পুলিশ প্রথমে তার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা জানতে পারে। এরপরে পুলিশ প্রহ্লাদ এবং নমিতাকে গ্রেফতার করে। তাদের দিয়ে ঘটনার পুনঃনির্মাণ করে আরও দুজনের নাম জানতে পারে পুলিশ। এরপর প্রসেনজিৎ ঘোষ নামে আরও এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারা খুনের কথা স্বীকার করে নেয়। এরপর তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ বাবুসোনার মুণ্ডু উদ্ধার করে। তারপরেও তারা দেহটি খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। অবশেষে গতকাল তার দেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

বন্ধ করুন