বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > নিউ টাউনে থানার ভিতরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী পুলিশ আধিকারিক
প্রয়াত দিব্যেন্দু মানিক।
প্রয়াত দিব্যেন্দু মানিক।

নিউ টাউনে থানার ভিতরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী পুলিশ আধিকারিক

  • খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছন বিধাননগর কমিশনারেটের আধিকারিকরা। খবর দেওয়া হয় পরিবারকে। বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে দেহ পাঠানো হয় ময়নাতদন্তের জন্য।

থানার ব্যারাক থেকে উদ্ধার হল তরুণ পুলিশকর্মীর ঝুলন্ত দেহ। এই ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে চাঞ্চল্য ছড়ায় কলকাতা লাগোয়া নিউ টাউনের টেকনো সিটি থানায়। নিহত পুলিশ আধিকারিকের নাম দিব্যেন্দু মানিক। টেকনো সিটি থানায় সাব ইন্সপেক্টর পদে কর্মরত ছিলেন তিনি।

টেকনো সিটি থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সকালে ডিউটি ছিল দিব্যেন্দুবাবুর। কিন্তু সময়মতো তিনি যোগদান না করায় তাঁর খোঁজ শুরু করেন অন্য কর্মীরা। থানার ভবনেরই তিন তলায় পুলিশ ব্যারাকের যে ঘরে তিনি থাকতেন সেখানে গিয়ে দরজা ধাক্কান তাঁরা। কিন্তু কেউ সাড়া দেননি। সারা থানা তন্ন তন্ন করে খুঁজেও তাঁর খোঁজ না মেলায় অবশেষে ব্যারাকের ঘরের দরজা ভাঙেন তাঁরা। দেখেন সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলছে দিব্যেন্দুবাবুর দেহ।

থানার ব্যারাক থেকে উদ্ধার হল তরুণ পুলিশকর্মীর ঝুলন্ত দেহ। এই ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে চাঞ্চল্য ছড়ায় কলকাতা লাগোয়া নিউ টাউনের টেকনো সিটি থানায়। নিহত পুলিশ আধিকারিকের নাম দিব্যেন্দু মানিক। টেকনো সিটি থানায় সাব ইন্সপেক্টর পদে কর্মরত ছিলেন তিনি।

টেকনো সিটি থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সকালে ডিউটি ছিল দিব্যেন্দুবাবুর। কিন্তু সময়মতো তিনি যোগদান না করায় তাঁর খোঁজ শুরু করেন অন্য কর্মীরা। থানার ভবনেরই তিন তলায় পুলিশ ব্যারাকের যে ঘরে তিনি থাকতেন সেখানে গিয়ে দরজা ধাক্কান তাঁরা। কিন্তু কেউ সাড়া দেননি। সারা থানা তন্ন তন্ন করে খুঁজেও তাঁর খোঁজ না মেলায় অবশেষে ব্যারাকের ঘরের দরজা ভাঙেন তাঁরা। দেখেন সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলছে দিব্যেন্দুবাবুর দেহ।

|#+|

খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছন বিধাননগর কমিশনারেটের আধিকারিকরা। খবর দেওয়া হয় পরিবারকে। বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে দেহ পাঠানো হয় ময়নাতদন্তের জন্য।

বিধাননগর কমিশনারেটের এক কর্তা জানিয়েছেন, এই মৃত্যুর বিভাগীয় তদন্ত হবে। দিব্যেন্দুবাবু কেন আত্মহত্যা করলেন জানতে কথা বলা হবে পরিবারের সঙ্গে। জানা গিয়েছে, এর আগে বিধাননগর কমিশনারেটের সাইবার থানায় কর্মরত ছিলেন দিব্যেন্দু মানিক। সম্প্রতি টেকনোসিটি থানায় বদলি হন তিনি।

 

বন্ধ করুন