বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Durgapur: ২-৩ দিন আগে মৃত্যু হয়েছে ছেলের, মৃতদেহ আগলে রাখলেন মা, দুর্গাপুরে চাঞ্চল্য

Durgapur: ২-৩ দিন আগে মৃত্যু হয়েছে ছেলের, মৃতদেহ আগলে রাখলেন মা, দুর্গাপুরে চাঞ্চল্য

দুর্গাপুরে পচা-গলা দেহ উদ্ধার করল পুলিশ। প্রতীকী ছবি।

ঘটনায় খবর পাওয়ার পরেই দুর্গাপুর থানার পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। সুশীলের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সেখানে এক তলার একটি ঘরে সুশীল তার মায়ের সঙ্গে থাকতেন। 

২-৩ দিন আগে মৃত্যু হয়েছে ছেলের। দুর্গন্ধে ভরে গেছে পুরো এলাকা। ঘরের ভিতরে ঢুকতেই স্থানীয়রা দেখতে পেলেন ছেলের মৃতদেহ আগলে বসে রয়েছেন মা। এবার রবিনসন স্ট্রিটের ছায়া দেখা গেল দুর্গাপুরে। মৃতের নাম সুশীল জানা (৪০)। গতকাল রাত থেকেই দুর্গন্ধ পাচ্ছিলেন প্রতিবেশীরা। আজ সুশীলের বাড়িতে ঢুকতেই বিছানায় তার মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। মৃতদেহে যেভাবে পচন ধরতে শুরু করেছে তাতে প্রতিবেশীদের অনুমান দু-তিনদিন আগে মৃত্যু হয়েছে সুশীলের। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ইস্পাত নগরী দুর্গাপুরের এ জোনের সেকেন্ডারি এলাকায়।

ঘটনায় খবর পাওয়ার পরেই দুর্গাপুর থানার পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। সুশীলের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সেখানে এক তলার একটি ঘরে সুশীল তার মায়ের সঙ্গে থাকতেন। তার মা অসুস্থ থাকায় খুব একটা বাইরে বেরোতেন না বাড়ির যাবতীয় কাজ এবং বাজার হাট সবই করতেন সুশীল। স্থানীয়দের বক্তব্য, তারা বেশ কয়েকদিন ধরেই বাইরে দেখতে পাননি সুশীলকে। তিনি বেশ কয়েকদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। ফলে তার বাড়ি থেকে দুর্গন্ধ পেয়ে সন্দেহ হচ্ছিল স্থানীয়দের।

আজ সকালে সুশীলের বাড়ি যান স্থানীয় বাসিন্দাদের একজন। সেখানে গিয়ে তিনি দেখতে পান বিছানায় শুয়ে রয়েছে সুশীল আর তার মা ভাবছেন ছেলে হয়তো ঘুমিয়ে রয়েছে। তাই তিনি ছেলেকে ডাকছেন না। ঘটনার পরেই শোরগোল পড়ে যায় এলাকায়। পুলিশের পাশাপাশি ঘটনাস্থলে যান স্থানীয় বাসিন্দা এবং প্রাক্তন কাউন্সিলার পল্লবরঞ্জন নাগ। পুলিশের অনুমান দু-তিন দিন আগে মৃত্যু হয়েছে সুশীলের। কীভাবে মৃত্যু হয়েছে ময়নাতদন্তের রিপোর্টে তা জানা যাবে। একই সঙ্গে ওই ব্যক্তির মায়ের মানসিক ভরসাম্যহীন কি না তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

বন্ধ করুন