বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Murshidabad: অনলাইন প্রতারণার অভিযোগে ধৃত ব্যক্তির কাছ থেকে উদ্ধার আড়াই হাজার সিম কার্ড
উদ্ধার হওয়া আড়াই হাজারটি সিম কার্ড। নিজস্ব ছবি

Murshidabad: অনলাইন প্রতারণার অভিযোগে ধৃত ব্যক্তির কাছ থেকে উদ্ধার আড়াই হাজার সিম কার্ড

  • ফলে কীভাবে ওই ব্যক্তি এতগুলি সিমকার্ড পেল তা খতিয়ে দেখছে তদন্তকারীরা। মুর্শিদাবাদের পুলিশ সুপার শাহ অমিত কুমার জানিয়েছেন, গত ৭ মে আলীমের বিরুদ্ধে অনলাইন প্রতারণার অভিযোগ জানিয়েছিলেন মালদহের ইংরেজবাজারের বাসিন্দা অর্ঘ্য রায়চৌধুরী নামে এক ব্যক্তি।

করোনা পরিস্থিতির পর আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে অনলাইনে নির্ভরতা যেমন বেড়েছে, তেমনি বেড়েছে অনলাইনে প্রতারণা। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় বিশেষ করে বড় বড় শহরগুলিতে ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে উঠছে ভুয়ো কল সেন্টার। এবার অনলাইন প্রতারণার অভিযোগে মুর্শিদাবাদ থেকে এক যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ। কিন্তু, যুবকের কাছ থেকে যা উদ্ধার হয়েছে তাতে চোখ কপালে পুলিশের। তার কাছ থেকে পাওয়া গিয়েছে আড়াই হাজারটি সিম কার্ড!

ধৃত যুবকের নাম আবদুল আলীম। তিনি মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘির বাসিন্দা। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, তার কাছ থেকে আড়াই হাজার ২৫৫টি সিমকার্ড উদ্ধার হয়েছে। একজন ব্যক্তির কাছে এতগুলি সিমকার্ড থাকাটা অবৈধ। ফলে কীভাবে ওই ব্যক্তি এতগুলি সিমকার্ড পেল তা খতিয়ে দেখছে তদন্তকারীরা। মুর্শিদাবাদের পুলিশ সুপার শাহ অমিত কুমার জানিয়েছেন, গত ৭ মে আলীমের বিরুদ্ধে অনলাইন প্রতারণার অভিযোগ জানিয়েছিলেন মালদহের ইংরেজবাজারের বাসিন্দা অর্ঘ্য রায়চৌধুরী নামে এক ব্যক্তি। তিনি ৩ লক্ষ ৭৮ হাজার টাকা প্রতারণার অভিযোগ জানিয়েছিলেন। তার ভিত্তিতে তদন্তে নেমে গত ২৩ মে আলীমকে গ্রেফতার করা হয়। কীভাবে সে এতগুলি সিমকার্ড পেল তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, ধৃতের কাছে উদ্ধার হওয়া সব সিমগুলিই ছিল প্রিপেইড সিম। প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে, ভুয়ো নথি দেখিয়ে ওই সিম কার্ড তুলেছেন ধৃত। এছাড়া, তার সঙ্গে কোনও সিম কার্ড ডিস্ট্রিবিউটরের যোগাযোগ আছে কি না তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তাছাড়া, ধৃত আলীম অবৈধভাবে এই সিমকার্ডগুলি জোগাড় করেছিল কিনা তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ধৃতকে আজ আদালতে তোলা হলে পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

বন্ধ করুন