বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সোনারপুরে দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত পুলিশ, সোনা লুঠ করে গা–ঢাকায় গ্রেফতার দুই
বিশাল পুলিশবাহিনী এসে দু’‌জনকে গ্রেফতার করে।

সোনারপুরে দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত পুলিশ, সোনা লুঠ করে গা–ঢাকায় গ্রেফতার দুই

  • চারিদিক দিয়ে আক্রমণ শুরু হয়ে যায়। ঘটনার কথা জানিয়ে খবর দেওয়া হয় সোনারপুর থানায়।

সোনা লুঠ করা দুষ্কৃতীদের ধরতে গিয়ে বেদম মার খেল পুলিশ। আশ্চর্য লাগলেও এই ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার সোনারপুর এলাকায়। অভিযুক্তরা উত্তরপ্রদেশ থেকে সোনা লুঠ করে এখানে গা ঢাকা দিয়েছিল। এই খবর পেয়ে মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে যায় পুলিশ। আর তাদের হাতে প্রহৃত হল পুলিশ। শুক্রবার এই ঘটনায় বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মী আহত হয়েছেন। পরে অবশ্য বিশাল পুলিশ বাহিনী গিয়ে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, গতবছর উত্তরপ্রদেশের একটি গোল্ড লোন সংস্থার অফিস থেকে ১৯ কেজি সোনা লুঠ করে দু’‌জন। পুলিশ খুঁজছে বুঝতে পেরে রাজপুর–সোনারপুর পুরসভা এলাকায় গা ঢাকা দেয় তারা। এমনকী রীতিমতো বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকতে শুরু করে। সন্দেহ যাতে না হয় তার জন্য নিজের মাকে নিয়ে এখানে থাকতে শুরু করে দুষ্কৃতী দুই ভাই। ধৃতদের নাম নরেন্দ্র যাদব ও অরুণ যাদব। তাদের মা রাজকুমারী যাদব।

ঠিক কী ঘটেছে সোনারপুরে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, এখানে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ অভিযুক্তদের পাকড়াও করতে আসে। সঙ্গে ছিল সোনারপুর থানার পুলিশও। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে তখন অভিযুক্তরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট ছুড়তে থাকে। ইটের ঘায়ে জখম হন বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মী। চারিদিক দিয়ে আক্রমণ শুরু হয়ে যায়। ঘটনার কথা জানিয়ে খবর দেওয়া হয় সোনারপুর থানায়। সেখান থেকে বিশাল পুলিশবাহিনী এসে দু’‌জনকে গ্রেফতার করে। ধৃতদের কাছ থেকে প্রায় তিন কেজির বেশি সোনা উদ্ধার হয়েছে।

এভাবে পুলিশ আক্রান্ত হওয়ায় তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। এই দুই সোনা লুঠ করা দুষ্কৃতীদের নামে উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন থানায় ৩০টির বেশি লুঠ, খুন এবং গুলি চালানোর মামলা পর্যন্ত রয়েছে। তাই ওখান থেকে সোনারপুর এলাকায় চলে আসে তারা। বারুইপুর মহকুমা আদালত ধৃতদের ট্রানজিট রিমান্ডের নির্দেশ দেয়।

বন্ধ করুন