বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হিঙ্গলগঞ্জে বিজেপি নেতার মৃত্যু ঘিরে বাড়ছে রাজনৈতিক চাপানউতোর
হিঙ্গলগঞ্জে বিজেপি নেতার মৃত্যু ঘিরে বাড়ছে রাজনৈতিক চাপানউতোর (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
হিঙ্গলগঞ্জে বিজেপি নেতার মৃত্যু ঘিরে বাড়ছে রাজনৈতিক চাপানউতোর (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

হিঙ্গলগঞ্জে বিজেপি নেতার মৃত্যু ঘিরে বাড়ছে রাজনৈতিক চাপানউতোর

  • মণীশ শুক্লা খুনের এখনও কিনারা হয়নি। তদন্ত চলছে। তার মধ্যেই পুজোর মুখে ফের রাজনৈতিক খুনের অভিযোগ বাংলায়।

মণীশ শুক্লা খুনের এখনও কিনারা হয়নি। তদন্ত চলছে। তার মধ্যেই পুজোর মুখে ফের রাজনৈতিক খুনের অভিযোগ বাংলায়। আর তা নিয়ে সরগরম রাজ্য–রাজনীতি। এই ঘটনায় বিজেপি রাজ্যপালের দ্বারস্থ হতে চায় বলে জানা গিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, উত্তর ২৪ পরগনার হিঙ্গলগঞ্জের বিজেপি নেতা রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল রাজনৈতিক সংঘর্ষে গুরুতর জখম হয়েছিলেন। তাঁকে ভর্তি করা হয়েছিল এসএসকেএম হাসপাতালে। সোমবার রাতে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। এই হামলার পিছনে শাসকদল তৃণমূল আছে বলে অভিযোগ বিজেপি’‌র।

মঙ্গলবার বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অভিযোগ করেন, ‘‌বুথ এলাকায় পতাকা লাগিয়েছিলেন বিজেপি কর্মীরা। সেই পতাকা তৃণমূলের লোকজন খুলে ফেলে দেয়। তার প্রতিবাদ করতে গেলেই ব্যাপক মারধর করা হয় বিজেপি নেতাকে।’‌

যদিও তৃণমূলের পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। তাদের বক্তব্য, নিজেদের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বেই জখম হয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ। এই কথা মেনে নিতে রাজি নয় বিজেপি। পালটা মেদিনীপুরের সাংসদের অভিযোগ, তৃণমূল খুন করেছে রবীন্দ্রনাথ মণ্ডলকে। মঙ্গলবার তাঁর ময়নাতদন্ত হয়েছে। হাসপাতালে যান শমীক ভট্টাচার্য–সহ রাজ্য বিজেপি’-র নেতারা।

উল্লেখ্য, সোমবারই শিলিগুড়িতে সভা করতে এসে বাংলার রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে সরব হয়েছিলেন বিজেপি সভাপতি জগৎপ্রকাশ নাড্ডা। আর গত রাতেই মৃত্যু হয়েছে হিঙ্গলগঞ্জের এই নেতার। এই নিয়ে জোর শোরগোল পড়ে গিয়েছে। এই ঘটনাকে সামনে নিয়ে আসতে চাইছে বিজেপি। কারণ এমনিতে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারির বিষয়ে মতপ্রকাশ করেছেন স্বয়ং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

বন্ধ করুন