বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শ্রীরামপুর লোকসভা কেন্দ্রে এবার কল্যাণের সমর্থনে পোস্টার
কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি
কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

শ্রীরামপুর লোকসভা কেন্দ্রে এবার কল্যাণের সমর্থনে পোস্টার

এই ফ্লেক্স কে বা কারা লাগিয়ে দিয়ে গিয়েছে, সে বিষয়টি স্পষ্ট নয়।

কিছুদিন আগে নিজের লোকসভা কেন্দ্র শ্রীরামপুরেই অস্বস্তির মধ্যে পড়তে হয়েছিল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে। এবার তাঁর সমর্থনেই ফ্লেক্স দেখা গেল সেই শ্রীরামপুর লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যেই। নিজের লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত হাওড়ার ডোমজুড়ে যেখানে কল্যাণকে চরিত্রহীন, নেশাখোর বলে আক্রমণ করা হয়েছিল, সেখানেই কল্যাণের সমর্থনেই ফ্লেক্স দেখা গেল।

শুক্রবার ডোমজুড় বিধানসভা কেন্দ্রের বাঁকড়া এলাকায় এলাকার সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে ফ্লেক্স দেখা যায়। সেই ফ্লেক্সে সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনেই লেখা হয়েছে। একই সঙ্গে প্রাক্তন বিধায়ক রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করা হয়েছে। যে ফ্লেক্সগুলি পাওয়া গিয়েছে, তাতে লেখা হয়েছে, ‘‌শ্রীরামপুর বার বার কল্যাণকেই চায়।’‌ আবার কোনও জায়গায় লেখা হয়েছে, ‘‌গদ্দার রাজীবের চক্রান্ত ব্যর্থ করবে তৃণমূল কর্মীরা।’‌ কোথাও আবার লেখা হয়েছে, ‘‌গদ্দার রাজীব তুমি হুশিয়ার।’‌ এই ফ্লেক্স কে বা কারা লাগিয়ে দিয়ে গিয়েছে, সেবিষয়টি স্পষ্ট নয়।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে শ্রীরামপুরের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই তিনি নেতা হিসাবে মনে করেন। আর কাউকে তিনি নেতা হিসাবে মানেন না। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে ডায়মন্ডহারবার মডেল কার্যকর হওয়ার পর কল্যাণের এই হেন মন্তব্য রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের ভাবিয়েছিল। এই মন্তব্য যে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করেই তা বুঝতে কারো অসুবিধা হয়নি। যদিও এই ঘটনার পর থেকেই কল্যাণকে নিয়ে বিক্ষোভ, কল্যাণের বিরুদ্ধে ফ্লেক্স লেখা নানা কাজ শুরু হয়ে যায়। তবে এদিনের কল্যাণের সমর্থনে এই ফ্লেক্স পড়া রাজনৈতিক দিক থেকে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

বন্ধ করুন