বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কমতে শুরু করেছে আলুর দাম, হাঁফ ছেড়ে বাঁচল মধ্যবিত্ত
কমতে শুরু করেছে আলুর দাম, হাঁফ ছেড়ে বাঁচল মধ্যবিত্ত (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
কমতে শুরু করেছে আলুর দাম, হাঁফ ছেড়ে বাঁচল মধ্যবিত্ত (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

কমতে শুরু করেছে আলুর দাম, হাঁফ ছেড়ে বাঁচল মধ্যবিত্ত

  • এবার নামতে শুরু করেছে আলুর দর। কারণ পাইকারি বাজারে গত কয়েকদিন ধরেই নামছে আলুর দর।

এবার নামতে শুরু করেছে আলুর দর। কারণ পাইকারি বাজারে গত কয়েকদিন ধরেই নামছে আলুর দর। এই নিয়ে তিনদিনে বস্তা (৫০ কিলোগ্রাম) প্রতি আলুর দাম অন্তত ৩০০ টাকা কমেছে। তার প্রভাব খুচরো বাজারেও পড়বে বলে মনে করছেন আলু ব্যবসায়ীরা। আলুর দাম যে হারে বাড়তে শুরু করেছিল, তাতে মধ্যবিত্তদের নাভিঃশ্বাস উঠছিল। সেখান থেকে খানিকটা স্বস্তি মিলবে।

সম্প্রতি কেজি প্রতি আলুর দাম পৌঁছায় ৪৫ থেকে ৫০ টাকায়। প্রায় অর্ধেক দামে আলু কিনতে ভিড় বাড়ছিল সুফল বাংলার স্টলে। টানা দু’মাস ধরে এই পরিস্থিতির পর অবশেষে আলুর দর নামছে বলে খবর। পাইকারি বাজারে গত দু’‌দিন আগে বস্তা প্রতি আলুর দাম ছিল ১,৯০০ টাকা। বুধবার তা নেমেছে ১,৬০০ টাকায়।

এখন কেন কমছে আলুর দাম? রাজ্যের প্রগতিশীল আলু ব্যবসায়ী সংগঠনের সম্পাদক লালু মুখোপাধ্যায়ের মতে, ‘বিহার–ওড়িশার মতো রাজ্যে আলুর চাহিদা কমেছে। পঞ্জাব, উত্তরপ্রদেশের নতুন আলু সারা দেশে রফতানি শুরু হয়েছে। তাই আগে যে আলুর চাহিদা ছিল, তা এখন আর নেই।’‌ চুঁচুড়ার খড়ুয়াবাজারের এক আলু বিক্রেতা বলেন, ‘তিনদিন আগে আলু কিনছিলাম প্রতি কেজি ৪০ টাকা দরে। সেস জন্য আমাদেরও বিক্রি করতে হচ্ছিল বেশি দামে। তাই পরিমাণে কম আলু কিনছিলেন ক্রেতারা। এখন দাম কমায় ক্রেতাও বেশি পরিমাণে আলু কিনছেন।’

বন্ধ করুন