প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

বাড়িতে একা পেয়ে নাবালিকার শ্লীলতাহানির অভিযোগ ষাটোর্ধ্ব গৃহশিক্ষকের বিরুদ্ধে

  • তখন বাড়িতে ছিল না কেউ। সেই সুযোগে নাবালিকার যৌন নিগ্রহ করেন তিনি। বিষয়টি নাবালিকা বাড়িতে জানালে গ্রামে বসে সালিশি সভা।

বাড়িতেই নাবালিকার শ্লীলতাহানির অভিযোগ ষাটোর্ধ্ব গৃহশিক্ষকের বিরুদ্ধে। ঘটনা পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরের। গোকুলনগরের বাসিন্দা ওই ছাত্রীর পরিবারের দাবি, পড়ানোর সময় বাড়িতে একা পেয়ে নাবালিকার শ্লীলতাহানি করতেন নিমাই চক্রবর্তী নামে ওই গৃহশিক্ষক। ঘটনায় দাসপুর থানায় অভিযোগ জানিয়েছে নির্যাতিতার পরিবার। অভিযুক্ত নিমাইবাবুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

চতুর্থ শ্রেণির ওই ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগ, দিন কয়েক আগে তাকে বাড়িতেই পড়াচ্ছিলেন পাশের দাদপুর গ্রামের বাসিন্দা নিমাই চক্রবর্তী নামে ওই বৃদ্ধ। তখন বাড়িতে ছিল না কেউ। সেই সুযোগে নাবালিকার যৌন নিগ্রহ করেন তিনি। বিষয়টি নাবালিকা বাড়িতে জানালে গ্রামে বসে সালিশি সভা। নাবালিকাকে নিজেদের উদ্যোগে শারীরিক পরীক্ষা করান গ্রামবাসীরা। তাতে যৌন নিগ্রহের বিষয়টি নিশ্চিত হলে নিমাই চক্রবর্তীকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে দাসপুর থানার পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে পকসো আইনের ধারায় মামলা হয়েছে। তবে সালিশি সভার মাতব্বরদের নাবালিকার শারীরিক পরীক্ষা করানোর অধিকার কে দিল, তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।



বন্ধ করুন