বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হলদিয়া রিফাইনারিতে উৎপাদন বন্ধ, চিঠি গেল সাংসদ থেকে জেলাশাসকের কাছে
হলদিয়ার ইন্ডিয়ান অয়েল রিফাইনারি। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
হলদিয়ার ইন্ডিয়ান অয়েল রিফাইনারি। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

হলদিয়া রিফাইনারিতে উৎপাদন বন্ধ, চিঠি গেল সাংসদ থেকে জেলাশাসকের কাছে

  • আর তাঁদের কাজ করতে না দেওয়ায় বন্ধ হয়ে গিয়েছে বিটুমিন ড্রাম ফিলিং ইউনিট।

প্রবল অশান্তির জেরে বন্ধ হয়ে গেল হলদিয়ার ইন্ডিয়ান অয়েল রিফাইনারির বিটুমিন ড্রাম ফিলিং ইউনিট। তবে এটা সাময়িক বলেই মনে করা হচ্ছে। এই অবস্থায় ইন্ডিয়ান অয়েল কর্তৃপক্ষ প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানিয়েছে। সেখানে বহিরাগত তাণ্ডব ও চুক্তি শ্রমিকদের উপর জুলুম করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। আর তাঁদের কাজ করতে না দেওয়ায় বন্ধ হয়ে গিয়েছে বিটুমিন ড্রাম ফিলিং ইউনিট। সূত্রের খবর, এখানে রাজনীতি প্রবেশ করেছে। বিজেপি জিতে ক্ষমতায় আসবে ধরে নিয়ে এখানে লোকজন ফিট করে রাখা হয়েছিল। কিন্তু বিজেপি ক্ষমতায় আসতে পারেনি। তাই তৃণমূল কংগ্রেস এখন সেখানে নিজেদের আধিপত্য দেখাচ্ছে।

হলদিয়ার বিধায়ক এখন বিজেপির তাপসী মণ্ডল। একদা তিনি সিপিআইএম নেত্রী ছিলেন। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে রিফাইনারি কর্তৃপক্ষ পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসককে চিঠি লিখে অভিযোগ জানিয়েছেন। কিন্তু এখনও কোনও সমস্যার সমাধান না হওয়ায় কাজ বন্ধ রয়েছে। এমনকী তমলুকের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারীকেও চিঠি লিখে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

কিন্তু অদ্ভূতভাবে ঘটনার কথা জানানো হয়নি বিধায়ক তাপসী মণ্ডলকে। নির্বাচনের পর থেকেই এখানে শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। ঠিকা শ্রমিককে এখানে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ। তাছাড়া গেট পাস কেড়ে নেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় শ্রমিক সংগঠনই এখানে এই কাজ করছে। ফলে কাজ বন্ধ হয়ে পড়ে রয়েছে। কর্তৃপক্ষের আশঙ্কা এভাবে চলতে থাকলে উৎপাদন ধাক্কা খাবে। আর উৎপাদন ধাক্কা খেলে অ্যাভিয়েশন ফুয়েল অমিল হয়ে পড়বে। যা বিমান পরিষেবায় লাগে। তবে এই সমম্যা থেকে কিভাবে কর্তৃপক্ষ বেরিয়ে আসবে তা নিয়ে কপালে ভাঁজ পড়েছে তাঁদের।

বন্ধ করুন