বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Pujo tour: পাহাড় থেকে ফেরার পথে দুদিনের জন্য যান রাজার শহরে,দেখুন প্রাণের ঠাকুর

Pujo tour: পাহাড় থেকে ফেরার পথে দুদিনের জন্য যান রাজার শহরে,দেখুন প্রাণের ঠাকুর

কোচবিহার রাজবাড়ি। সংগৃহীত

অবশ্যই যাবেন কোচবিহার রাজবাড়ি। ১৮৮৭ সালে মহারাজা নৃপেন্দ্রনারায়ণের আমলে তৈরি এই সুবিশাল প্রাসাদ।এই প্রাসাদ দেখলে অনেকের রোমের সেন্ট পিটার্স গির্জার কথা মনে পড়ে যায়।অপূর্ব স্থাপত্য আর তার সঙ্গে জড়িয়ে থাকা রাজ আমলের ইতিহাস। রাজবাড়িতে পা দিলেই অনুভব করবেন সেই সোনালী অতীতের দিনগুলো।

পুজোয় উত্তরবঙ্গ যাবেন ভাবছেন? পাহাড় থেকে ফেরার পথে এবার বেড়ানোর তালিকায় রেখে দিন কোচবিহারের নাম। এনজেপি থেকে বাসে অথবা গাড়িতে চলে আসুন কোচবিহার। ট্রেনেও আসা যায়। রাজার শহর কোচবিহার। এই শহরের পরতে পরতে লেখা আছে ইতিহাস।রাজবাড়ি, মদনমোহন মন্দির। সাগরদিঘির পাড়। উত্তরবঙ্গে বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা থাকলে দুটো দিন রেখে দিন কোচবিহারের জন্য।

 আর পুজোর চারদিনের মধ্যে হলে তো কথাই নেই। দেবী বাড়িতে গিয়ে বড়দেবীকে দর্শন করুন।অন্তর থেকে পুজো দিন। জেনে নিন দেবীর পুজোর অভিনব কিছু রীতি। ভক্তদের বিশ্বাস মন থেকে ডাকতে পারলে মনস্কামনা পূরণ করেন বড়দেবী। মনের ইচ্ছা পূরণ করেন কোচবিহারের প্রাণের ঠাকুর মদনমোহন।

কোচবিহার বেড়ানোর জন্য দুদিনের পরিকল্পনা করতে পারেন। রাতে কোচবিহারে পৌঁছে পরের দিনের জন্য একটা বেড়ানোর পরিকল্পনা করে রাখতে পারেন। তবে শহরের দ্রষ্টব্য জায়গাগুলো টোটেতেই ঘুরে নিতে পারেন। সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠে চলে যেতে পারেন সাগরদিঘির পাড়ে। চারপাশে প্রশাসনিক ভবন। মাঝে সুবিশাল দিঘি। সকালে ব্যস্ততা শুরু হয় না তখনও। সেই সময় অপূর্ব লাগে এখানকার পরিবেশ।

সেখানে কিছুক্ষণ কাটিয়ে চলে যান কাছেই মদনমোহন মন্দির। মহারাজা নৃপেন্দ্রনারায়ণের আমলে ১৮৮৫-১৮৮৯ সালে তৈরি হয়েছিল এই মন্দির।শ্বেতশুভ্র মন্দির। বৈরাগী দিঘির উলটো দিঘি এই মদনবাড়ি। কোচবিহারবাসীর প্রাণের ঠাকুর শ্রী মদনমোহন রয়েছেন এখানে।রাসযাত্রা, দোলযাত্রা, জন্মাষ্টমী এখানে উৎসবের চেহারা নেয়।

অবশ্যই যাবেন কোচবিহার রাজবাড়ি। ১৮৮৭ সালে মহারাজা নৃপেন্দ্রনারায়ণের আমলে তৈরি এই সুবিশাল প্রাসাদ।এই প্রাসাদ দেখলে অনেকের রোমের সেন্ট পিটার্স গির্জার কথা মনে পড়ে যায়।অপূর্ব স্থাপত্য আর তার সঙ্গে জড়িয়ে থাকা রাজ আমলের ইতিহাস। রাজবাড়িতে পা দিলেই অনুভব করবেন সেই সোনালী অতীতের দিনগুলো। রাজবাড়ি দেখতেই অনেকটা সময় কেটে যাবে আপনার। 

এরপর কাছেপিঠে হেরিটেজ মন্দিরগুলি দেখে নিতে পারেন। ব্রাহ্মমন্দির, ডাঙ্গরাই মন্দির, কামতেশ্বরী মন্দির। এরপর  যাত্রীবাহী গাড়িতে চেপে আধঘণ্টার মধ্যে চলে চলে যাতে পারেন বাণেশ্বর মন্দির দর্শনে। মন্দির যাওয়ার জন্য গাড়িও ভাড়া করতে পারেন। এখানেই রয়েছে সেই মোহনের দল। মন্দির সংলগ্ন দিঘিতে রয়েছে এই কচ্ছপগুলি। সারাদিন খুব ভালো করে কাটবে। সন্ধ্যেবেলা আবার মদনমোহন মন্দিরের আরতি দেখতে যান। ঠাকুরের দিব্যরূপ দেখে চলে যান সাগরদিঘির পাড়ে। কিছুক্ষণ বসে থাকুন। মন ভালো হয়ে যাবে। কোচবিহারে না এলে অপূর্ণই থেকে যাবে আপনার উত্তরবঙ্গ ভ্রমণ।

 

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

গ্রেটার তিপ্রাল্যান্ডের দাবিতে প্রেশার গেম! ভোটের আগে আমরণ অনশনের পথে প্রদ্যোৎ মেয়ের কোলে ছেলে, অনীক পুত্র আদবান-এর মুখে ভাত, দেখুন অন্দরের ছবি Water Drinking Problems: প্রয়োজনের চেয়ে বেশি জল খেলে এইসব ক্ষতি হয়, আজ নিজেই জেনে নিন পুকুরের নীচে পা দিতেই…, বিহারে ট্রাক্টর দুর্ঘটনায় হাড়হিম অভিজ্ঞতা উদ্ধারকারীদের EPL 2023 (Bournemouth vs Manchester City) Live Updates: ‘স্বামী হিসাবে আমার খামতি কোথায়?’ ডিভোর্সের পর কিরণকে প্রশ্ন আমিরের, কী জবাব দেন চোট সারিয়ে ইস্টবেঙ্গলে ফিরছেন অজি ডিফেন্ডার, বিদেশির কোটা পূরণ, খেলবেন কী ভাবে? উচ্চমাধ্যমিকে সাংবাদিকতা পরীক্ষার প্রশ্ন কেমন হল? কঠিন হয়েছে? জানালেন শিক্ষক ১লা মার্চই বাংলায় ১০০ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী, কমিশনের নজরে সন্দেশখালিও জোর করে বিয়ে, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার মধ্যেই আত্মঘাতী আলিপুরদুয়ারের ছাত্রী

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.