বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দোষী হলে শাস্তি পাক ভাই, তবে বাবাকে ফাঁসানো হচ্ছে, দাবি ব্রজ গয়ালির দিদির
গামছায় মোড়া মুখ। হাঁসখালি গণধর্ষণে মূল অভিযুক্ত ব্রজগোপাল গয়ালি। নিজস্ব চিত্র
গামছায় মোড়া মুখ। হাঁসখালি গণধর্ষণে মূল অভিযুক্ত ব্রজগোপাল গয়ালি। নিজস্ব চিত্র

দোষী হলে শাস্তি পাক ভাই, তবে বাবাকে ফাঁসানো হচ্ছে, দাবি ব্রজ গয়ালির দিদির

  • সংবাদমাধ্যমকে সঙ্গীতাদেবী জানিয়েছেন, গত ২ এপ্রিল স্বামীর সঙ্গে ভেল্লুরুতে ডাক্তার দেখাতে গিয়েছিলেন তিনি। সেদিন থেকে তাঁর শ্বশুরবাড়িতেই থাকছিলেন সমরেন্দ্র গয়ালি তাঁর স্ত্রী ও ছেলে ব্রজ।

হাঁসখালিকাণ্ডে অবশেষে মুখ খুললেন অভিযুক্ত ব্রজ গয়ালির পরিবারের কোনও সদস্য। অভিযুক্ত ব্রজ গয়ালির দিদি সঙ্গীতা গয়ালি সংবাদমাধ্যমের সামনে জানিয়েছেন, একজন মেয়ে হিসাবে ভাইয়ের শাস্তি চান তিনি। তবে বাবা সমর গয়ালি এই ঘটনায় যুক্ত নন বলে দাবি তাঁর।

সংবাদমাধ্যমকে সঙ্গীতাদেবী জানিয়েছেন, গত ২ এপ্রিল স্বামীর সঙ্গে ভেল্লুরুতে ডাক্তার দেখাতে গিয়েছিলেন তিনি। সেদিন থেকে তাঁর শ্বশুরবাড়িতেই থাকছিলেন সমরেন্দ্র গয়ালি তাঁর স্ত্রী ও ছেলে ব্রজ। ৪ এপ্রিল নিজের ফাঁকা বাড়িতে পার্টির আয়োজন করেছিল ভাই। রাত ৮টার মধ্যে আমার শ্বশুরবাড়িতে ফিরে আসে সে। তার আগে বাবাও ফিরে এসেছিল।

তিনি বলেন, ঘটনার পর ভাইয়ের সঙ্গে কথা হয়নি। তবে বাবার সঙ্গে কথা হয়েছে। বাবা জানিয়েছে উনি নির্দোষ। তাঁকে রাজনৈতিক কারণে ফাঁসানো হয়েছে। তবে তাঁরা দোষী প্রমাণিত হলে তাঁদের শাস্তি চাইব।

হাঁসখালিকাণ্ডের তদন্তে নেমে সিবিআইয়ের দাবি, ধর্ষণের পর রক্তক্ষরণে মৃত্যু হয়েছিল নির্যাতিতার। তার পর ছেলেকে বাঁচাতে প্রমাণ লোপাট করতে ঝাঁপিয়ে পড়েন সমরেন্দ্র গয়ালি। রাজনৈতিক প্রভাব ব্যবহার করে নাবালিকার দেহ ডেথ সার্টিফিকেট ছাড়াই স্থানীয় শ্মশানে সৎকার করে দেন। দ্রুত সৎকারের ব্যবস্থা করতে শ্মশানে পাহারা বসান তিনি। এমনকী নাবালিকার পরিবার যাতে মুখ না খোলে সেজন্য হুমকি দিতে লোক পাঠান তিনি।

 

বন্ধ করুন