বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > গণিখানের তৈরি পার্কের নাম বদল করল রেল, মালদহে রাজনৈতিক তরজা

গণিখানের তৈরি পার্কের নাম বদল করল রেল, মালদহে রাজনৈতিক তরজা

হুসেন শাহ পার্ক

এই পার্ক ১৯৮২ সালে তৈরি হয়েছিল। তৎকালীন রেলমন্ত্রী আবু বরকত আতাউর গনিখান চৌধুরীর উদ্যোগেই মালদহ টাউন স্টেশন সংলগ্ন পার্কটি তৈরি হয়। তখন গৌড়বঙ্গের রাজা হুসেন শাহর নামে নামকরণ করা হয়েছিল। সেই পার্কেরই এবার নাম বদল করে দিয়েছে মোদী সরকারের রেলমন্ত্রক।

এবার নাম বদলে দিয়ে বিতর্কে জড়াল ভারতীয় রেল। মালদহে প্রাক্তন প্রয়াত রেলমন্ত্রী গনিখান চৌধুরী একটি পার্ক তৈরি করেছিলেন। এবার হঠাৎই সেই পার্কের নাম বদলে দিল রেল। যা নিয়ে রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে উঠেছে। আর এই বিষয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন মালদহের ডিভিশনাল রেলওয়ে ম্যানেজার।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, মালদহে প্রাক্তন রেলমন্ত্রী গনিখান চৌধুরী একটি পার্ক তৈরি করেছিলেন। সেই পার্কের নাম হঠাৎ করেই বদলে দিল রেল। ‘হুসেন শাহ পার্ক’র নাম বদলে করা হল ‘প্রশান্তি উদ্যান’। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই কংগ্রেস, তৃণমূল কংগ্রেস সোচ্চার হয়েছে।

পার্কের ইতিহাস কী বলছে?‌ এই পার্ক ১৯৮২ সালে তৈরি হয়েছিল। তৎকালীন রেলমন্ত্রী আবু বরকত আতাউর গনিখান চৌধুরীর উদ্যোগেই মালদহ টাউন স্টেশন সংলগ্ন পার্কটি তৈরি হয়। তখন গৌড়বঙ্গের রাজা হুসেন শাহর নামে নামকরণ করা হয়েছিল। সেই পার্কেরই এবার নাম বদল করে দিয়েছে মোদী সরকারের রেলমন্ত্রক। এখানে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি দেখছেন বিজেপি বিরোধীরা।

কে কী বলছেন নাম বদল নিয়ে?‌ সূত্রের খবর, এই পার্কটি বেসরকারি হাতে তুলে দিতে পরিকল্পনা করেছে রেলমন্ত্রক। তাই নাম বদল করা হয়েছে। এই বিষয়ে মালদহ জেলা কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি কালীসাধন রায় বলেন, ‘‌নাম পরিবর্তনের নামে নোংরা রাজনীতি করছে বিজেপি। ’‌ ইংরেজবাজার পুরসভার চেয়ারম্যান কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরী বলেন, ‘‌এই পার্কের সঙ্গে গনিখান চৌধুরীর আবেগ জড়িয়ে রয়েছে। পার্কের পুরনো নাম বহাল রাখার জন্য রেলকে চিঠি দিয়েছি। ’‌ আর দক্ষিণ মালদহ সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সভাপতি পার্থসারথি ঘোষের সাফাই, ‘‌হাজার বছরের পরাধীনতার নিদর্শন মুছে ফেলার কাজ করছে বিজেপি।’‌

বন্ধ করুন