বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ভ্রাতৃবধূকে ধর্ষণ করে পালিয়েছিলেন কেরলে, ১ বছর পরে ধরল ধূপগুড়ি পুলিশ
প্রতীকি ছবি

ভ্রাতৃবধূকে ধর্ষণ করে পালিয়েছিলেন কেরলে, ১ বছর পরে ধরল ধূপগুড়ি পুলিশ

  • অভিযুক্তের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে করলে হানা দেয় ধূপগুড়ি থানার পুলিশ আধিকারিকদের একটি দল। স্থানীয় পুলিশের সহযোগিতায় গত ৪ এপ্রিল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে ধূপগুড়ি থানার পুলিশ।

ভ্রাতৃবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে কেরলের কেনিচিড়া থেকে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল ধূপগুড়ি থানার পুলিশ। গত বছর জুনে তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ জানিয়েছিলেন ভ্রাতৃবধূ। এর পরই এলাকা ছাড়েন অভিযুক্ত। তবে তার পিছু ছাড়েনি পুলিশ।

ধূপগুড়ির পূর্ব মল্লিকপাড়ার বাসিন্দা বধূর অভিযোগ, বাড়িতে একা পেয়ে তাঁকে ধর্ষণ করেন তাঁর ভাসুর বাপি দাস। গত বছর জুনে ধূপগুড়ি থানায় এই অভিযোগও দায়ের করেন তিনি। কিন্তু এর পরই এলাকা ছাড়েন বাপি। পুলিশও তাঁর খোঁজে মোবাইল ফোনের নম্বর ট্র্যাক করা শুরু করে। জানা যায় কেরলের কেনিচিড়ায় শ্রমিকের কাজ নিয়েছে সে।

অভিযুক্তের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে করলে হানা দেয় ধূপগুড়ি থানার পুলিশ আধিকারিকদের একটি দল। স্থানীয় পুলিশের সহযোগিতায় গত ৪ এপ্রিল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে ধূপগুড়ি থানার পুলিশ। এর পর তাঁকে পেশ করা হয় স্থানীয় আদালতে। সেখানে ট্রানজিট রিম্যান্ডে নিয়ে অভিযুক্তকে ধূপগুড়িতে নিয়ে আসেন পুলিশকর্মীরা।

প্রায় ১ বছর অভিযুক্ত গ্রেফতার হওয়ায় আতঙ্ক কিছুটা কেটেছে নির্যাতিতার। পরিবার ও প্রতিবেশীরা অভিযুক্তের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

 

বন্ধ করুন