বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'ত্রাণসামগ্রী যাচ্ছে দলের কাউন্সিলরদের ঘরে,' হাটে হাড়ি ভাঙলেন প্রাক্তন বিধায়ক
মালদহ থেকে আসানসোল ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগে বার বার বিদ্ধ হচ্ছে শাসকদল (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
মালদহ থেকে আসানসোল ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগে বার বার বিদ্ধ হচ্ছে শাসকদল (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

'ত্রাণসামগ্রী যাচ্ছে দলের কাউন্সিলরদের ঘরে,' হাটে হাড়ি ভাঙলেন প্রাক্তন বিধায়ক

  • বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, কুলটির প্রাক্তন বিধায়ক তো ঠিকই বলেছেন। আমাদের মুখের কথাই বলেছেন উজ্জ্বল বাবু বলেছেন।

এতদিন বিরোধীদের মুখে শোনা যেত এই কথা। সেই কথাই সামনে আনলেন খোদ শাসকদলের প্রাক্তন বিধায়ক উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায়। একেবারে বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন তৃণমূলের একাধিক প্রাক্তন কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। শনিবার আসানসোলে দলের কর্মী সম্মেলেন একেবারে চাঁচাছোলাভাবে আক্রমণ করেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি তথা প্রাক্তন বিধায়ক উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায়। সকলের সামনেই তিনি বলেন, ‘আসানসোল পুর এলাকার বেশ কয়েকজন প্রাক্তন কাউন্সিলর জন পরিষেবাখাতে ব্যয় করা জিনিস নিজের ঘরে ঢুকিয়ে নিচ্ছেন। চাল, ডাল, ত্রিপল  সবই সাধারণ মানুষের। দুর্গতদের ঘরে না গিয়ে তা যাচ্ছে সেই কাউন্সিলরের ঘরে যারা দুর্নীতি করে চলেছেন।’ এদিকে উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায় যখন একথা বলছেন তখন পুরপ্রশাসক অমরনাথ চট্টোপাধ্যায় মঞ্চে বসে ছিলেন। তবে কি অমরনাথকে অস্বস্তিতে ফেলে হাটে হাড়ি ভাঙলেন উজ্জ্বল ?

 

এনিয়ে অমরনাথ চট্টোপাধ্যায়ের দাবি, 'এটি তাঁর ব্যক্তিগত মতামত। এর সঙ্গে পুরবোর্ডের কোনও সম্পর্ক নেই। বিদায়ী পুরবোর্ডের মধ্যে যাঁরা বোরো অফিসের দায়িত্বে ছিলেন বা পুর প্রশাসক বোর্ডের সদস্য রয়েছেন তাঁদেরই কিছু কিছু দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আমরা এখনও সব জায়গায় জিনিস পৌঁছাতে পারিনি। হয়তো উজ্জ্বলবাবু এই বিষয়ে জানেন না। তাছাড়া যদি সত্যি এই ধরনের ঘটনা হয়ে থাকে তবে সেক্ষেত্রে আমাদের নামের তালিকা দিলে আমার পরিচালনা করতে সুবিধা হবে।' এদিকে কার্যত উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায়কে সমর্থন জানিয়ে বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, কুলটির প্রাক্তন বিধায়ক তো ঠিকই বলেছেন। আমাদের মুখের কথাই বলেছেন উজ্জ্বল বাবু বলেছেন।

 

বন্ধ করুন