বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > নিজের ফেসবুক পেজ থেকেই রিমুভ TMC'র কোচবিহার জেলা সভাপতি, ফের দ্বন্দ্বের মেঘ
অভিজিৎ দে ভৌমিক, কোচবিহার তৃণমূল জেলা সভাপতি

নিজের ফেসবুক পেজ থেকেই রিমুভ TMC'র কোচবিহার জেলা সভাপতি, ফের দ্বন্দ্বের মেঘ

  • ঘটনা যাই হোক, ঘরশত্রু বিভীষণকে খুঁজতে একেবারে উঠেপড়ে লেগেছে জেলা তৃণমূল। সাইবার ক্রাইমের কাছে বিষয়টি জানানোর কথাও ভাবছেন তৃণমূল নেতৃত্ব।

একে তো গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে তুমুল অস্বস্তিতে তৃণমূল। তার মধ্যে কোচবিহারে আবার দ্বন্দ্বে অন্য মোড়। দলের জেলা সভাপতির চেয়ারে সদ্য বসেছেন অভিজিৎ দে ভৌমিক। বিগত দিনে তৃণমূলের যুব নেতা ছিলেন। একেবারে লড়াকু নেতা বলেই পরিচিত এলাকায়। কিন্তু সেই নেতারই অভিযোগ, আমার নিজের ফেসবুক পেজ থেকেই আমাকে রিমুভ করে দেওয়া হয়েছে। ঠিক কী হয়েছে ঘটনাটি?

অভিজিৎ দে ভৌমিক ওরফে হিপ্পির দাবি, Avijit De bhowmik Hippy এই পেজটি থেকে আমি কোনও পোস্ট করতে পারছি না। আমি অপর একজনকে এডমিন করেছিলাম। তার নাম উজ্জ্বল রায়। সে আমার পোস্টগুলো করছে। দেখা যাচ্ছে গতকাল রাত থেকেই আমাকে তৃতীয় কোনও ব্যক্তি আমার পেজ থেকেই রিমুভ করে দিয়েছেন। এটা কী করে সম্ভব হল বুঝতে পারছি না। আমার পেজ থেকেই আমাকে রিমুভ করে দেওয়া হচ্ছে। 

এদিকে এই ঘটনায় শোরগোল জেলা তৃণমূলের অন্দরে। খোদ জেলা সভাপতিকে তাঁর ফেসবুক পেজ থেকে রিমুভ করার ঘটনায় ইতিমধ্যেই খোঁজখবর শুরু হয়ে গিয়েছে। অভিজিৎ ঘনিষ্ঠদের একাংশের মতে এডমিনকেও সন্দেহ করা হচ্ছে। তবে অন্য ব্যক্তি এই ঘটনার পেছনে রয়েছে কি না সেটাও দেখা হোক। অন্য় কেউ পাসওয়ার্ড জেনে নিয়ে এসব করতে পারে।

তবে ঘটনা যাই হোক, ঘরশত্রু বিভীষণকে খুঁজতে একেবারে উঠেপড়ে লেগেছে জেলা তৃণমূল। সাইবার ক্রাইমের কাছে বিষয়টি জানানোর কথাও ভাবছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। 

 

বন্ধ করুন