বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কাজে যোগ দিয়েছিলেন ৫দিন আগে, মেটেলিতে ঝোড়ার মধ্যে পড়েছিল ডাক্তারবাবুর দেহ
ইনডং চা বাগানের চিকিৎসক হিসাবেই কাজে যোগ দিয়েছিলেন সুব্রত কুমার কর । (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
ইনডং চা বাগানের চিকিৎসক হিসাবেই কাজে যোগ দিয়েছিলেন সুব্রত কুমার কর । (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

কাজে যোগ দিয়েছিলেন ৫দিন আগে, মেটেলিতে ঝোড়ার মধ্যে পড়েছিল ডাক্তারবাবুর দেহ

  • তাঁকে খুন করে ওখানে ফেলে রাখা হয়েছে কি না তা নিয়ে নানা সংশয় দানা বেঁধেছে।

গত ২১শে জানুয়ারি মেটেলির ইনডং চা বাগানের চিকিৎসক হিসাবে কাজে যোগ দিয়েছিলেন। ৬দিনের মধ্যে বাগানের কাছে ঝোড়া থেকে উদ্ধার হল চিকিৎসকের দেহ। গোটা ঘটনায় রহস্য দানা বেঁধেছে। তাঁকে খুন করে ওখানে ফেলে রাখা হয়েছে কি না তা নিয়ে নানা সংশয় দানা বেঁধেছে। স্থানীয় সূত্রে খবর, মৃত চিকিৎসকের নাম সুব্রত কুমার কর। তিনি আদপে কোচবিহারের বাসিন্দা। সম্প্রতি তিনি চা বাগানের চিকিৎসক হিসাবে কাজে যোগ দিয়েছিলেন। আর দিন কয়েক যেতে না যেতেই এই ভয়াবহ ঘটনা। পুলিশ ইতিমধ্যেই দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য় পাঠিয়েছে। 

প্রশ্ন উঠছে ওই ঝোড়ার কাছে চিকিৎসক কেন গিয়েছিলেন? নাকি তাঁকে জোর করে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ওই জায়গায়? স্থানীয় সূত্রে খবর, ঝোড়াটিতে বর্তমানে জল সেভাবে নেই। তিরতির করে জল বইছে। বৃহস্পতিবার সকালে বাগানের বাসিন্দারা দেখেন ঝোড়ার মধ্যে একটি দেহ পড়ে রয়েছে। এরপরই এনিয়ে হইচই শুরু হয়ে যায়। পরে দেখা যায় দেহটি নবনিযুক্ত চিকিৎসকের। বিষয়টি জানাজানি হতেই চারদিকে শোরগোল পড়ে যায়। এদিকে স্থানীয় সূত্রে খবর এদিন সকাল থেকেই ওই চিকিৎসকের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে দেখা যায় ঝোড়ার মধ্যে পড়ে রয়েছে তাঁর দেহ। ঘটনার খবর পেয়েই ইনডং চা বাগানের ম্যানেজার, ইনডং মাটিয়ালি গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান প্রমুখ ঘটনাস্থলে আসেন। 

 

বন্ধ করুন