বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > একমাস পেরোতেই ডাকাতির কিনারা পুলিশের, বারুইপুরে গ্রেফতার ডাকাত দল
পাঁচ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল বারুইপুর থানার পুলিশ।

একমাস পেরোতেই ডাকাতির কিনারা পুলিশের, বারুইপুরে গ্রেফতার ডাকাত দল

  • এই চারজনকে ক্যানিং, উস্থি এবং বেতবেরিয়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ৩৯৯ ও ৪০২ ধারাতে মামলা দায়ের হয়েছে। ধৃতদের আজ বারুইপুর মহকুমা আদালতে তোলা হবে। চারজনকেই নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাবে বারুইপুর থানার পুলিশ। 

গত ৮ এপ্রিল বারুইপুরের নস্করপাড়ার একটি বাড়িতে দুঃসাহসিক ডাকাতি হয়। ওইদিন রাত প্রায় দেড়টা নাগাদ ডাকাতদল এলাকার একটি বাড়িতে ঢোকে। তারপর বন্দুক ও ধারাল অস্ত্র দেখিয়ে লুটপাট চালানো হয় বলে অভিযোগ। এমনকী বাড়ির চার সদস্যের হাত–মুখ বেঁধে ডাকাতি করা হয়। প্রায় লক্ষাধিক টাকা এবং সোনার গয়না লুট করে পালিয়ে যায় ডাকাত দলটি। তবে একমাস পেরোতেই এই ডাকাতির কিনারা করে ফেলল বারুইপুর থানার পুলিশ।

ঠিক কী ঘটেছিল বারুইপুরে?‌ গৃহকর্তা বাঁশি নস্করের বাড়িতে হানা দেয় ডাকাতদল। তখন বাড়ির চার সদস্যদের হাত, পা ও মুখ বেঁধে ফেলে সশস্ত্র ডাকাত দলটি। তারপর ব্যাপক লুঠপাট চালায় তারা। সাতজনের এই ডাকাতদলের হাতে ছিল ধারাল অস্ত্র এবং বন্দুক। লুঠ হয়েছে প্রায় লক্ষাধিক টাকা। কয়েক লক্ষ টাকার সোনার গহনাও লুঠ করে তারা চম্পট দেয়।

কতদিন পর কিনারা হল ডাকাতির?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, ঘটনার তদন্তে নেমে কেটে গিয়েছে প্রায় একমাস দশ দিন। আজ, সোমবার ওই ডাকাতির ঘটনায় যুক্ত থাকা পাঁচ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল বারুইপুর থানার পুলিশ। রবিবার বিকেলে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গোচরণ এলাকায় হানা দেন পুলিশ কর্মীরা। সেখান থেকে ডাকাতির ঘটনায় যুক্ত অন্যতম মূল অভিযুক্ত ভোলা গাজিকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আলিনুর গাজি, আজগর মোল্লা, ইসমাইল মোল্লা এবং রাকিবুল খানকে গ্রেফতার করা হয়।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ জানা গিয়েছে, এই চারজনকে ক্যানিং, উস্থি এবং বেতবেরিয়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ৩৯৯ ও ৪০২ ধারাতে মামলা দায়ের হয়েছে। ধৃতদের আজ বারুইপুর মহকুমা আদালতে তোলা হবে। চারজনকেই নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাবে বারুইপুর থানার পুলিশ। আজ পুরো বিষয়টি বারুইপুর থানাতে সাংবাদিক বৈঠক করে জানান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইন্দ্রজিৎ বসু।

বন্ধ করুন